আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিক

কায়রোতে পুলিশ-ফুটবল ভক্তদেন সংঘর্ষে নিহত ৪০

kayro wmnওমেনআই: মিশরের রাজধানী কায়রোতে রোববার পুলিশ এবং ফুটবল ভক্তদের সংঘর্ষে কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ২০ জন। দেশটির বিখ্যাত জামালেক ফুটবল ক্লাবের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বী ইএনপিপিআই ক্লাবের ম্যাচের আগে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে বলে বিবিসি ও আল জাজিরা জানিয়েছে। রক্তক্ষয়ী এ সংঘাতের পর ফুটবল লিগের সকল ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

রোববার বিকেলে কায়রোর উত্তর পূর্বাঞ্চলীয় এয়ার ডিফেন্স স্টেডিয়ামে ফুটবল ম্যাচটি শুরু হওয়ার আগে দর্শক প্রবেশকে ঘিরে দু পক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয। এক পর্যায়ে পুলিশের দেয়া ব্যারিকেড ভেঙে সমর্থকরা স্টেডিয়ামে ঢুকার চেষ্টা করলে টিয়ার গ্যাস চালায় পুলিশ। এরপর দু পক্ষের মধ্যে দাঙ্গা শুরু হয়।

ফুটবল সমর্থকদের অভিযোগ, মাত্র একটি গেট দিয়ে দর্শক ঢোকানোর ফলে ওই বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়েছিল।

তবে এ ঘটনার জন্য জামালেক ক্লাবের সমর্থকদের দায়ি করেছে মিশর সরকার। রোববার রাতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে প্রচারিত এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ওই ক্লাবের প্রচুর সমর্থক টিকেট না কেটে জোর করে স্টেডিয়ামে প্রবেশের চেষ্টা করে। নিরাপত্তা বাহিনী তাদের আটকানোর চেষ্টা করলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এদিকে এ ঘটনার পর জামালেক সমর্থক গোষ্ঠী ‘আলট্রাস হোয়াইট নাইটস’য়ের নেতাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছে পুলিশ। কায়রোর এ সংঘর্ষের ঘটনায় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন মিশরের পাবলিক প্রসিকিউটর।

এর আগে ২০১২ সালে মিশরের পোর্ট সৈয়দ শহরে এক ফুটবল দাঙ্গার পর শেষবারের মত ফুটবল ম্যাচ বাতিল করা হয়েছিল। ওই দাঙ্গায় ৭৪ ভক্ত নিহত হয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, মিশরের নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে জামালেক ফ্যান ক্লাব আলট্রাসদের সম্পর্ক ভালো নয়। কেননা ২০১১ সালে দেশটিতে স্বৈরচারী শাসক হুসনী মোবারকের বিরুদ্ধে যে গণবিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছিল তাতে অন্যতম ভূমিকা পালন করেছিল এই ফ্যান ক্লাবটি। এর পর থেকেই স্টেডিয়ামগুলোর বাইরে প্রায়ই দু পক্ষকে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়তে দেখা যায়।

ঢাকা, ৯ ফেব্রুয়ারি (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close