আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিক

দায় চাপালেন ফতোয়ার ওপর

kironওমেনআই:দিল্লির বিধানসভা নির্বাচনে নিজের আসনে হেরে যাওয়ার পর থেকেই এর ওর ওপর দোষ চাপিয়ে চলেছেন বিজেপি প্রার্থী এবং সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা কিরণ বেদি। বুধবার তিনি আঙ্গুল তুলেছেন দিল্লি মসজিদের শাহী ইমামের ‘ফতোয়ার’ ওপর।

ভোটের মাত্র একদিন আগে জামা মসজিদের ইমাম সৈয়দ আহমেদ বুখারি মুসলিম ভোটারদের প্রতি কেজরিওয়ালের দল আম আদমি পার্টিকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন। এই আহ্বানই নাকি কিরণের জন্য কাল হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তাই বুধবার ইমাম বুখারির বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। দিল্লির নির্বাচন কমিশন তার অভিযোগটি খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছে।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী পদে মনোনীত ৬৩ বছরের কিরণ বেদি কৃষ্ণনগর আসন থেকে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছিলেন যা ছিল বিজেপি’র নিরাপদ আসন। এর আগে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ ওই আসনে পাঁচ পাঁচ বার জয় পেয়েছিল বিজেপি। কিন্তু এবার আপ প্রার্থী এসকে বাঘার কাছে দুই হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন বেদি। পরে বুধবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেন,‘কৃষ্ণনগরে ভোট গণনা শুরু হওয়ার পর প্রথম দিকে আমি এগিয়ে ছিলাম। কিন্ত পরে আমার ভোট কমতে থাকে। ফতোয়ার কারণেই এখানে আমার ভোট কমে গেছে।’ তার ভাষায়,‘এটি স্পষ্ট যে, তার ওই ফতোয়া ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছিল।’

যদিও দিল্লির প্রায় সব ক’টি আসনেই ভরাডুবি হয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির। তারা পেয়েছে মাত্র ৩ আসন। অন্যদিকে দিল্লি নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের দল ৭০ আসনের মধ্যে ৬৭টি আসন পেয়ে বিজয়ী হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার ফলাফল ঘোষণার পর কিরণ নিজ দলের ওপর দোষ চাপিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন,‘আমি হারিনি-বিজেপি হেরেছে। এটি একটি জাতীয় দল। কাজেই তাদের অন্তর্দর্শন করা উচিত।’ একই অভিযোগ করেছিলেন কিরণ বেদির স্বামীও।

তার স্বামী ব্রিজ বেদি বিজেপির নেতা কর্মীদের আন্তরিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেছিলেন, ‘যদি তাকে পুরোপুরি সমর্থন দেয়াই হয়ে থাকে তাহলে সে জিতল না কেন?’ তিনি আরো বলেন, বিজেপির পরাজয়ের জন্য কিরণ বেদি দায়ী নয়, বিজেপিই তার জয় নিশ্চিত করতে পারেনি।

প্রসঙ্গত, শনিবার ভোটের আগের দিন মুসলিম ভোটারদের প্রতি ধর্ম নিরপেক্ষ আপ প্রার্ধীদের ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছিলেন ইমাম বুখারি। কিন্তু দ্রুত তার ওই আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছিলেন আপ নেতারা।

ঢাকা, ১২ ফেব্রুয়ারি (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close