আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আপন ভুবন

নারীদের বলবো  প্রতিবাদী হও, লড়ে যাও

জান্নাতুল ফেরদৌস পান্না: আমাকে যখন এই লিখাটি লিখতে হচ্ছে তখন সারা বিশ্বময় এক অদৃশ্য মহামারি কোভিড-১৯ আতঙ্ক চারিদিক । কে মরবে কে বাঁচবে কেউ বলতে পারছি না। আমরা সবাই কেমন জানি নিজের কাছে নিজেই পালিয়ে বেরাচ্ছি। প্রিয় ঢাকা শহর ছেড়ে লক ডাউনে প্রথম দিনই (২৫ মার্চ ২০২০) একমাত্র মেয়েকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি চলে আসি। আমি যখন এই লিখাটি লিখছি তখন ৪ মাস পেরিয়ে গেছে । দিন দিন করোনার প্রভাব বেড়েই চলছে । অথচ আমাদেরই সমাজে বসবাসরত মানুষরুপী কিছু জানোয়ার হাতের কাছেই ঘুরে বেড়ায় । দেখতে একদম মানুষের মতো । কিন্তু তাদের ভেতরে কি রয়েছে আমরা কেউই জানি না । নিজ এলাকায় রাজনীতি করার সুবাদে গ্রামে এসে ঘরে বসে থাকার উপায় নেই। সাধারণ মানুষের দুঃখ কষ্ট সারাক্ষণ আমাকে তাড়া করে বেড়ায়। কিভাবে কোন উপায়ে প্রতিদিন অন্তত কারোর না কারো উপকার করা যায় সেই প্রচেষ্ঠাই চালিয়ে যাই।
যাক, এবার আসি মূল প্রসঙ্গে।
বরাবরের মতো আজও ৪০জন অসহায় দরিদ্র মানুষকে ত্রাণ বিতরন করেছি। দুপুরে দু’জন প্রিয় মানুষের জন্য ঈদ-উপহার কিনতে পাকুন্দিয়া বাজারের শপিং মলে ঢুকি। আমার সাথে পাকুন্দিয়া উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রয়েছেন । একটি মধ্য বয়সী ছেলে। আমাদের পিছু নেয়। প্রায় ঘন্টাখানেক আমাদের পেছন পেছন ছুটে বেড়ায়। একসময় থানা সংলগ্ন এলাকায় এসে ঠিক আমার পাশ ঘেঁষে বাজে মন্তব্য করে (যাকে ইভটিজিং বলে)। সাথে সাথে প্রতিবাদ করতে এগিয়ে যাই।
প্রথমে মুখের মাস্ক খুলে ছবি তুলি। পরে পাকুন্দিয়া থানার কর্মকর্তাকে ফোন করতে গেলে পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে। অবশেষে নিজের হাতে থাকা মোবাইল দিয়েই উপর্যুপরি উত্তম মধ‍্যম শুরু করি….। এক পর্যায়ে শয়তানটি আমার পায়ের কাছে লুটিয়ে পড়ে। আমার পাশে থাকা সেক্রেটারি আমাকে শান্ত করায় চেষ্টা করে। এরই ফাঁকে ছেলেটি দৌড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আনার একটি উদ্দেশ্য রয়েছে। আমরা যারা নারীদের নিয়ে কাজ করি তাদের পিছিয়ে থাকলে চলবে না। দারুণভাবে সাহসিকতার সঙ্গে এগিয়ে যেতে হবে। সমাজে উদাহরণ তৈরী করতে হবে। আমি সারা দেশের নারীদের বলবো আপনারা/ তোমরা প্রতিবাদী হও, লড়ে যাও, কখনো পিছনে তাকাবে না । দেখবে এ ধরনের পুরুষ নামের জানোয়ারগুলো লেজ গুটিয়ে পালাবে। কারণ আমরা নারী- আমরাও পারি। আমার এই লিখাতে যদি একজন নারীও সচেতন হন, নিজেকে শক্তভাবে তৈরী করেন তবেই আমার লিখা সার্থক হবে। জয় হোক মানবতার। জয় হোক নারী জাতির।
##
লেখক:
কবি ও সাংবাদিক

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close