আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
শিল্প-সংস্কৃতি

আন্তর্জাতিক নারী চলচ্চিত্র উৎসব শুরু

film-festival-thereport24ওমেনআই:‘নারীর চোখে চলচ্চিত্র’—এই স্লোগান নিয়ে শুরু হল ‘ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ফাউন্ডেশন দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক নারী চলচ্চিত্র উৎসব।’ উইমেন্স ফিল্ম সোসাইটি আয়োজিত এবারের উৎসব উৎসর্গ করা হয়েছে নারী জাগরণের অগ্রদূত রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনকে।

রাজধানীর কেন্দ্রীয় পাবলিক লাইব্রেরির শওকত ওসমান স্মৃতি মিলনায়তনে শনিবার বিকেলে চার দিনব্যাপী এই উৎসবের উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। বিশেষ অতিথি ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। আরও উপস্থিত ছিলেন উইমেন্স ফিল্ম সোসাইটির সভাপতি লাইলুন নাহার ইকরাম, উৎসব পরিচালক মেহেদী হাসান, উৎসব সমন্বয়ক মশিউর রহমান, স্টার কম্পিউটার সিস্টেমসের প্রতিনিধি রেজওয়ানা খান।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘চলচ্চিত্র নির্মাণে প্রেরণা যোগাতে এ ধরনের উৎসব কার্যকর ভূমিকা রাখবে। বিশেষ করে নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র উৎসব আমাদের চলচ্চিত্রশিল্পে নতুন মাত্রা যোগ করবে। নারীরা অনেক ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে। তাদের সামনের দিকে এগিয়ে আনতে সরকার সবসময় সচেষ্ট। মুক্তবুদ্ধি চর্চার দিক থেকে নারী-পুরুষের মধ্যে পার্থক্য নেই।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘চলচ্চিত্রকে আমরা বিশেষ শিল্প হিসেবে ঘোষণা করেছি। আর্থিক সুযোগ-সুবিধাও বাড়িয়েছি। এফডিসিকেও নতুনভাবে সাজানো হচ্ছে। খুব শিগগিরই চলচ্চিত্রশিল্পে নতুন জোয়ার আসবে। নারী নির্মাতাদের আমরা আর্থিক সহায়তা দিচ্ছি। একইভাবে শিশু চলচ্চিত্রের জন্যও আর্থিক সহায়তা বাড়ানো হবে।’

সারাহ বেগম কবরী বলেন, ‘আমাদের দেশে নারীরা এখনো অবহেলিত। এখনো মেয়েরা ইভটিজিংয়ের শিকার হন। এ ধরনের উৎসব আরও হওয়া দরকার। নারী নির্মাতাদের জন্য সরকারি পৃথক কোনো তহবিল নেই। পৃথক তহবিল করা দরকার।’

তথ্যমন্ত্রীর প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলোর অবস্থা খুবই করুণ। সিনেমা হলগুলোর সংস্কার করা দরকার। অন্যদিকে সিনেকমপ্লেক্সগুলোতে টিকিটের দাম অনেক বেশী। এত টাকা দিয়ে অনেকেই সিনেমা দেখার সামর্থ্য রাখেন না। তাই টিকিটের দাম কম হওয়া দরকার। আমরা যেন বেশি বেশি সিনেমা বানাতে পারি, সে জন্য সরকারি সহযোগিতা দরকার।’

অনুষ্ঠানে দু’জন চলচ্চিত্র নির্মাতাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। তারা হলেন ইয়াসমিন কবির ও শাহিদা আক্তার। এ ছাড়া নারীদের চলচ্চিত্র নির্মাণে সহায়তা করার জন্য ইমপ্রেস টেলিফিল্মকে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে সম্মাননা দেওয়া হয়। উদ্বোধনী পর্ব শেষে প্রদর্শন করা হয় সামিয়া জামানের চলচ্চিত্র ‘আকাশ কত দূরে’।

এবারের উৎসবে বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৩০টি দেশের নারী নির্মাতাদের মোট ৭০টি চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে পূর্ণদৈর্ঘ্য কাহিনিচিত্র, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, প্রামাণ্যচিত্র ও এ্যানিমেশন চলচ্চিত্র। প্রতিটি সিনেমার কাহিনীও নারীকে কেন্দ্র করে। প্রতিদিন সকাল ১১টা, দুপুর ২টা ও বিকেল ৫টায় প্রদর্শিত হবে সিনেমা। দর্শনী ছাড়াই নারীরা সিনেমা দেখতে পারবেন। দর্শকদের ভোটে ৫টি সিনেমাকে দেওয়া হবে ‘অডিয়েন্স এ্যাওয়ার্ড’।

ঢাকা, ১৫ মার্চ (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close