আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
বিনোদন

স্বাধীনতা দিবসের নাটক শুক্লপক্ষের আহ্বান

suklo poker ahobannnn_59396_1ওমেনআই : খুলনা জেলার চুকনগরের একটি সত্য ঘটনার ছায়া অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে স্বাধীনতা দিবসের নাটক শুক্লপক্ষের আহ্বান। মেজবাহ উদ্দিন সুমন এর রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন হাবিব মাসুদ। নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন, আরফান নিশো, অর্পণা, আবদুল্লাহ রানা, ওবায়েদ প্রমূখ। নাটকটি প্রচার হবে আরটিভিতে ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে রাত ৮ টা ২০ মিনিটে।

নাটকে দেখা যাবে, ১৯৯০ সালে বাংলাদেশের একটি গ্রামের চিত্র। আর দশটি গ্রামের মত এই গ্রামেরই এক প্রেমিক যুগল লতা আর সুজন। লতা গ্রামের অবস্থা সম্পন্ন গৃহস্থ জমির মুন্সির একমাত্র কন্যা। জমির মুন্সি কন্যার কোন খুত রাখেননি। মেয়ে যেমন সুন্দর তেমন তার পড়ালেখা, আদব কায়দা- মাসাআল্লাহ। মেয়ে কি সুন্দর সুর করে কোরআন শরীফ পড়ে জমির মুন্সির মন ভরে যায়। আর সুজন এলাকার উত্তর পাড়ার প্রভাবশালী মিঞা বাড়ির ডিগ্রি পাশ ছেলে। সুজন আর লতার এই মিষ্টি প্রেমের গল্প গ্রামের সবার জানা। আহা কি চমৎকার প্রেম, যেনো চন্ডীদাস-রজকীনি, শিরি-ফরহাদ।

কিন্তু আর কতোদিন চলবে এ প্রেম। প্রেমেরতো পরিণতি হওয়া দরকার। সুজনের মায়ের খুব পছন্দ লতাকে। পরিবারের সবাই অনেক আগেই লতাকে মেনেই নিয়েছে। সুজনের মা লতাকে বউ করার জন্য প্রস্তাব পাঠান লতাদের বাড়িতে। একমাত্র মেয়ের সম্মদ্ধ হবে মিঞার ছেলের সাথে, লতার বাবার কোনো আপত্তি নেই। দু’পরিবার মিলে সাব্যস্ত হয় আসছে শীতে নতুন ধান উঠলে খুব ধুমধাম করে বিয়ে হবে। স্বপ্নের প্রজাপতিগুলো যেন ডানা মেলতে থাকে লতার মনে। অতঃপর নির্দিষ্ট দিনে বিয়ের জন্য মেয়ের বাড়িতে উপস্থিত বরপক্ষ। উত্তর পাড়া মসজিদের ইমাম শেখ আজমতউল্লাহ এসে উপস্থিত হন বিয়ের বাড়িতে। জমির মুন্সি আজমতউল্লাহকে দেখে চমকে ওঠেন, আজমত বলেন, এইডা তোমার মাইয়া না। হঠাৎ কিসের যেন গুঞ্জন শুরু হয়। কি যেনো কানাকানি, ফুসুর ফুসুর। বিয়ে আর হয় না।

১৯৭১ সালে এক রাতের বেলা এক অভিযাত্রী দলের উপর হামলা করে হত্যা যজ্ঞ চালায় পাকিস্থানী আর্মি। সেদিন রাতেই আজমতউল্লাহ সপ্তপর্নে গিয়েছিলেন কেউ বেঁচে আছে কিনা দেখতে। লাশের স্তুপ থেকে এক ফুটফুটে ৬ মাসের শিশু কন্যাকে জীবিত কুড়িয়ে পায় তখনকার পকিস্থানের খাদেম আজমতউল্লাহ। সে এই মেয়েকে নিয়ে এসে নিঃসন্তান জমির মুন্সির কোলে দান করেন। জমির মুন্সিও তাকে নিজের মেয়ের মতো লালন পালন করেন এবং নাম দেন লতা। বাচ্চাটি যেই মৃত মায়ের দুধ খাবার চেষ্টা করছিলো আর তার মাথায়….. … সিঁদুর ছিলো। কাজেই এ হিন্দু ঘরের মেয়ে। তার সাথে একজন মুসলমানের বিয়ে কিভাবে হয়। ঘটনার মোড় নেয় অন্যদিকে।

ঢাকা, ২৫ মার্চ (ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close