আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিক

লিবিয়ায় নৌকাডুবি: বাংলাদেশিসহ ২২ জন উদ্ধার, নিখোঁজ ১৬

ওমেনআই ডেস্ক : লিবিয়ার উপকূলে অভিবাসী বহনকারী একটি নৌকা ডুবির ঘটনা ঘটেছে৷ বাংলাদেশিসহ ২২ জন অভিবাসনপ্রত্যাশীকে উদ্ধার করা হলেও এখনো নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ১৬ জন। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) শুক্রবার এ তথ্য জানিয়ে বলেছে, ভূমধ্যসাগরে বৃহস্পতিবার রাতে ওই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে।

উদ্ধার হওয়া অভিবাসীরা বাংলাদেশ, মিশর, সিরিয়া, সোমালিয়া এবং ঘানার নাগরিক৷ তিনজনের মৃরদেহ উদ্ধার করেছেন স্থানীয় জেলেরা৷ এদের মধ্যে দুজন সিরীয়। অপরজন ঘানার নাগরিক। আইওএম জানিয়েছে, নিখোঁজ ১৬ জন সমুদ্রে ডুবে গেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে৷

লিবিয়ার কোস্টগার্ড জানিয়েছে, নৌকাডুবির ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে পারে। নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারে কাজেএখনো চলছে।

এ নিয়ে এক মাসের মধ্যে লিবিয়ার উপকূলে নৌকাডুবির দুটি ঘটনা ঘটল। আইওএমের তথ্যমতে, এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বরের নৌকা ডুবে ২০ জনের মৃত্যু হয়।

বৃহস্পতিবার রাতের নৌকাডুবির ঘটনার খবর এমন সময় ঘটল, যার এক দিন আগেই লিবিয়ার সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে শরণার্থী ও অভিবাসনপ্রত্যাশী ব্যক্তিদের ওপর ভয়াবহ নিপীড়নের অভিযোগ নিয়ে কাজ করার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

লিবিয়ার সাবেক শাসক মোয়াম্মার গাদ্দাফির সরকারের পতনের পর ২০১১ সাল থেকে দেশটি হয়ে উঠেছে মানব পাচারের গুরুত্বপূর্ণ পথ। এই পথেই ঝুঁকিপূর্ণভাবে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করেন অনেক অবৈধ্য অভিবাসনপ্রত্যাশী। আর এই ঝুঁকি নিতে গিয়ে প্রতিবছরই সলিলসমাধি হয় অনেকের।

আইওএমের তথ্যানুসারে, গত বছর এক লাখের বেশি অভিবাসনপ্রত্যাশী ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছেন। এর মধ্যে ১ হাজার ২০০ জনের বেশি মারা গেছেন। আর চলতি বছর এ পর্যন্ত লিবিয়ার উপকূলে তিন শতাধিক অভিবাসনপ্রত্যাশী ও শরণার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এ তথ্য জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) ও আইওএমের।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close