আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
উদ্যোক্তা

ফেরদৌসীর আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন

zannatওমেনআই: মায়ের কোলে চড়ে পরীক্ষা দিতে আসে ক্ষুদ্র মানবী জান্নাতুল ফেরদৌসী। তার উচ্চতা মাত্র আড়াই ফুট। কিন্তু উচ্চতায় ক্ষুদ্র এই মানবীর স্বপ্ন অনেক ‍উঁচু।

তিনি চাঁদপুর জেলার মতলব দক্ষিণ উপজেলার উপাদী উত্তর ইউনিয়নের লেজাকান্দি গ্রামের হতদরিদ্র নজরুল ইসলাম ও নাজমা বেগমের মেয়ে।

মতলব ডিগ্রি কলেজের মানবিক বিভাগের মেধাবী ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসী চলমান এইচএসসি পরীক্ষার প্রথম থেকেই তিনি তার মায়ের কোলে চড়ে রয়মনেন নেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে এসে পরীক্ষা দিচ্ছে।

গত ৯ এপ্রিল রয়মনেননেছা মহিলা ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে জানা যায়, জান্নাতুল ফেরদৌসীকে তার মা নাজমা বেগম কোলে করে কেন্দ্রের কক্ষের ভেতরে নিয়ে যান। তিনি জান্নাতকে বেঞ্চে বসিয়ে দিয়ে বাইরে অপেক্ষা করেন। পরীক্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত তার এ অপেক্ষা।

জান্নাতুল ফেরদৌসীর সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানান, স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে কিছুটা সমস্যা হলেও মা আমাকে সার্বক্ষণিক কাছে থেকে সহায়তা করায় কোনো সমস্যা মনে হয় না।

পরীক্ষা সম্পর্কে তিনি জানান, এ পর্যন্ত ৩টি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরীক্ষা ভালো হচ্ছে। ভবিষ্যত উচ্চ শিক্ষা অর্জন করে ভালো একটি চাকরি করে মা-বাবার পাশে থেকে তাদের সেবা করা। তাই তিনি সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

২ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে ফেরদৌসী সবার বড়। তার মা নাজমা বেগম জানান, ফেরদৌসী জন্মগত এরকম। তার পড়ালেখার প্রতি আগ্রহ থাকায় বহু প্রতিকূলতার মধ্য দিয়ে এবং কষ্ট করে স্কুল-কলেজে নিয়মিত কোলে করে যাতায়াত করেছেন। তিনি জান্নাতের উজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনায় সবার আন্তরিক সহযোগিতা ও দোয়া চেয়েছেন।

এদিকে, জান্নাতুল ফেরদৌসীর উচ্চশিক্ষায় আর্থিক সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারহানা ইসলাম। তিনি রোববার বিকেলে তার কার্যালয়ে জান্নাতের হাতে ১০ হাজার টাকার একটি চেক তুলে দেন। এ সময় মা নাজমা বেগমের কোলে চড়েই চেকটি গ্রহণ করেন জান্নাত।

ঢাকা, ১৩ এপ্রিল (ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close