আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
শিল্প-সংস্কৃতি

নববর্ষের উৎসবে মেতেছে বাংলা একাডেমি

banglaওমেনআই: বাংলা একাডেমিতে গান, কবিতা ও আলোচনার মধ্য দিয়ে বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নেওয়া হয়। মঙ্গলবার সকাল থেকেই উৎসবের আমেজে মুখর ছিল একাডেমি প্রাঙ্গণ।

সকালে রবিরশ্মির শিল্পীদের পরিবেশনায় ও মহাদেব ঘোষের পরিচালনায় বর্ষবরণ সংগীতের মধ্য দিয়ে একাডেমির নজরুল মঞ্চে নববর্ষের অনুষ্ঠান শুরু হয়। এরপর ছিল একক বক্তৃতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও স্বরচিত ছড়া-কবিতা পাঠ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান। বাংলা নববর্ষ বিষয়ে একক বক্তৃতা প্রদান করেন এমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। সভাপতিত্ব করেন একাডেমির সভাপতি এমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামান।

শামসুজ্জামান খান বলেন, ‘শুভ, কল্যাণ ও মঙ্গলের বার্তা নিয়ে পয়লা বৈশাখ আমাদের বিশ্ববোধে উন্নীত করুক। অপসংস্কৃতি, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে এবারের বৈশাখ হোক আমাদের নতুন শপথের প্রথম দিন।

অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘পৃথিবীর নানা দেশেই নববর্ষ উৎসব প্রচলিত আছে। তবে বাঙালির বাংলা নববর্ষ একেবারেই স্বতন্ত্র। সন গণনার পরিসর ছাপিয়ে নববর্ষ উৎসব এখন বৃহত্তর বাঙালির জাতীয় উৎসবে পরিণত হয়েছে। পাকিস্তান আমলে বাংলা নববর্ষ উৎসব আমাদের জাতিসত্তার অস্তিত্বসূচক আয়োজনে রূপ লাভ করে।’

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, সত্য ও সুন্দরের পথে আবাহন করে বাংলা নববর্ষ ১৪২২ আমাদের সবার জীবনে সুখ সমৃদ্ধি ও অনাবিল শান্তি বয়ে আনুক।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী অনিমা রায়, এ.কে.এম শহীদ কবীর পলাশ, ফারহানা ফেরদৌসী তানিয়া, মাহবুবা রহমান, সঞ্জয় কুমার দাস, সুধীর মন্ডল।

অনুষ্ঠানে ছড়া ও কবিতাপাঠ পর্বে অংশগ্রহণ করেন কবি রফিক আজাদ, রবিউল হুসাইন, মুহাম্মদ সামাদ, সুকুমার বড়ুয়া, রফিকুল হক, মাহবুব তালুকদার, আখতার হুসেন, মাহমুদ উল্লাহ, ফারুক নওয়াজ, আসলাম সানী, আলম তালুকদার, আমীরুল ইসলাম, খালেক বিন জয়েনউদদীন, শাফিকুর রাহী, তাহমিনা কোরাইশী, আলী হাবিব, মালেক মাহমুদ, সুজন বড়ুয়া, কাজী দিনার সুলতানা বিন্তি প্রমুখ। ছড়া ও কবিতা পাঠ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট কবি আসাদ চৌধুরী এবং স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বাংলা একাডেমির মহপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

এছাড়া বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)-এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বিকেল ৪টায় ১০দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস।

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে বইয়ের আড়ং :

বাংলা নববর্ষ ১৪২২ উপলক্ষে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বইয়ের আড়ং উদ্বোধন করেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। ১লা বৈশাখ থেকে ১০ই বৈশাখ পর্যন্ত বইয়ের আড়ং চলবে। প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আড়ং খোলা থাকবে। বাংলা একাডেমী থেকে প্রকাশিত বই ৩০-৭০% ছাড়ে বিক্রি হবে।

ঢাকা, ১৬ এপ্রিল (ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close