আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
শিল্প-সংস্কৃতি

বিপাশা হায়াতের চিত্রপ্রদর্শনী

MRK_9075ওমেনআই: গুলশান বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে শনিবার সন্ধ্যায় শুরু হয়েছে বিপাশা হায়াতের চিত্রকর্ম প্রদর্শনী। ‘স্মৃতির রাজ্যে’ বা ‘রি-আল্মস অফ মেমোরি’ শিরোনামে বিপাশার চতুর্থ একক প্রদর্শনীটি যৌথভাবে উদ্বোধন করেন ঢাকার কোরিয়ান রাষ্ট্রদূত লী ইউন ইয়াং ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক কথাসাহিত্যিক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম।
অভিনয়শিল্পী হিসেবে দেশব্যাপী পরিচিত বিপাশা হায়াত। হয়ত পেশা হিসেবেই অভিনয়কে বেছে নিয়েছিলেন। কিন্তু বর্তমানে অভিনয়ে তাকে তেমন একটা দেখা যায় না। পূর্ণ মনোনিবেশ করেছেন চিত্রশিল্পে। প্রতিনিয়তই নিজের আবেগ অনুভূতিকে তুলির স্পর্শে নান্দনিক করে তুলছেন।
বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে ২১ দিনব্যাপী প্রদর্শনীর উদ্বোধনপর্বে নিজের অঙ্কন সম্পর্কে বিপাশা হায়াত জানান, টুকরো টুকরো ঘটনাও জীবনে গভীর দাগ রেখে যায়। যে ছোট্ট ঘটনা কোনো আঁচড় কাটছে না— এখন একটা সময় সেই মুহূর্তটাই হয়ে উঠবে জীবনের সবচেয়ে উজ্জ্বল মুহূর্ত।
বিপাশা আরও বলেন, ‘মানুষের দেহ সীমাবদ্ধ। কিন্তু তার মনের পরিধি অসীম। ক্যানভাসে সেই অসীম মনের রাজ্য থেকে স্মৃতির টুকরোগুলো ভেসে বেড়াচ্ছে ক্যানভাসে। আমার ছবির টুকরো অংশগুলো প্রতিনিধিত্ব করে আমার টুকরো স্মৃতিগুলোকে। আর যে লাইনগুলো দিয়ে এগুলো আলাদা করা সেটা এঁকে আহ্বান করে আমার বর্তমানে। ক্যানভাসটা আসলে এ দুটি সময় অতীত বর্তমান এবং আমার মৌলিক আবেগ ধরে রাখার জায়গা।’
বিপাশা হায়াতের ছবি প্রসঙ্গে শিল্পসমালোচক অধ্যাপক সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম বলেন, ‘এর আগেও দেখেছি বিপাশা নিজেকে ভাঙছে। সে নতুন করে নিজেকে উপস্থাপন করছে। তার এই যাত্রাটা অত্যন্ত সৎ। প্রথম থেকে নিজের শিল্পভাষা সৃষ্টি করতে চাইছেন বিপাশা।’
এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন— বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের লিটু ও বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জের পরিচালক নওশীন খায়ের। প্রদর্শনীতে ঠাঁই পেয়েছে মোট ৩৬টি চিত্রকর্ম। এর মধ্যে রয়েছে ২৮টি পেইন্টিং ও ৮টি ড্রইং। তিন সপ্তাহব্যাপী এ প্রদর্শনী শেষ হবে ২৯ আগস্ট। প্রতিদিন বেলা ১২টা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ঢাকা, ০৯ আগস্ট(্ওমেনঅাই)//এসএল//

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close