আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
স্বাস্থ্য

চা দূর করবে মানসিক চাপ!

tea wmnওমেনআই: কাজের চাপ, পারিবারিক এবং সম্পর্কের টানাপোড়ন, সামাজিক নানা সমস্যার কারণে সৃষ্টি হতে পারে মানসিক চাপের। সামান্য মানসিক চাপটাকে আমরা কেউই তেমন গুরুত্ব দিই না। কিন্তু মানসিক চাপটা যদি অতিরিক্ত হয়ে যায় তাহলে তা হতে পারে মারাত্মক কোনো রোগের কারণ। সাইকোলজিস্ট এবং হেলথ এক্সপার্টদের মতে মানসিক চাপ থেকে যতোটা দূরে থাকা যায় ততটাই ভাল। কিন্তু হাজার চেষ্টা করে তা থেকে দূর থাকা সম্ভব নয়। এই মানসিক চাপ কমানোর জন্য অনেকে খেয়ে থাকেন ঔষধ। ঔষধ না খেয়ে পান করতে পারেন কিছু স্বাস্থ্যকর পানীয়। যা আপানার মানসিক চাপ কমিয়ে আপনাকে করে তুলবে উদ্যমী এবং কাজে আরও মনযোগী । আসুন জেনে নেই সেই জাদুকরী পানীয়গুলোর কথা, যা আপনার মানসিক চাপ কমিয়ে দিতে সাহায্য করবে।
১। ঠান্ডা বা গরম দুধ

যদি আপানার ঘুমের সমস্যা থাকে তবে এক গ্লাস দুধ খেয়ে নিতে পারেন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে। দুধের অ্যামিনো অ্যাসিড আপনার মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করবে। আপনি চাইলে দুধে সামান্য পরিমাণে মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। তবে কখনও অ্যালকোহলের সমর্পণ হবেন না। এটি সাময়িকভাবে আপনাকে তন্দ্রাচ্ছন করলেও আপনার প্রতিদিনের ঘুমের চক্রকে বাঁধাগ্রস্ত করবে।
২। মশলা চা

মশলা চা অনেক ভাল কাজ করে মানসিক চাপ কমানোর জন্য। পুদিনা পাতা, আদা, এলাচ, দারুচিনি, লেবুর খোসা দিয়ে বানিয়ে নিন এককাপ মশলা চা। তবে চায়ে চিনি দেবেন না।
৩। মধু চা

মশলা চা খেতে না চাইলে খেতে পারেন মধু চা। মধু চা ও আপনার শরীরের ক্লান্তি দূর করে আপনাকে করে তুলবে কর্ম উদ্যমী। মশলা চায়ের স্বাদ বাড়াতে যোগ করতে পারেন মধু। আবার চায়ের বদলে গরম নারকেলের দুধ, গরম দুধেও মধু যোগ করে খেতে পারেন। তবে লক্ষ্য রাখবেন মধুর পরিমাণ যেন বেশী না হয়। আর আপনি যদি ডায়াবেটিসের রোগী হয়ে থাকেন তবে মধু ব্যবহার না করাই ভাল।
৪। সবুজ চা

এক নিমিষে ক্লান্তি দূর করার জন্য সবুজ চায়ের জুড়ি নেই। সবুজ চায়ে থিয়ানিন নামক উপাদান আছে যা আপনার স্নায়ু ঠাণ্ডা রাখতে সাহায্য করে। প্রতিদিন এক কাপ সবুজ চা পান করুন। সম্ভব হলে সকাল শুরু করুন এক কাপ সবুজ চা দিয়ে। অফিস থেকে ফিরেও পান করে নিন এক কাপ সবুজ চা। এটি আপানার মানসিক চাপ কমিয়ে আপনাকে ভেতর থেকে শান্তি দেবে।

ঢাকা, ০৯ আগস্ট(্ওমেনঅাই)//এসএল//

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close