আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
স্বাস্থ্য

শরীরের মারাত্মক ক্ষতি করছে এনার্জি ড্রিংকস!

drinksওমেনআই:বর্তমানে শুধুমাত্র ইউরোপ ও এশিয়াতে ৮০টির বেশি ব্র্যান্ডের এনার্জি ড্রিংক তৈরি হচ্ছে। বিশ্বের ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী তরুণের ৩১ শতাংশ নিয়মিত এনার্জি ড্রিংক গ্রহণ করে বলে জানা যায়।

এছাড়াও নানান বয়সের মানুষের মাঝে এনার্জি ড্রিংকসের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমানে চিনি ও ক্যাফিয়েনের প্রভাব। এনার্জি ড্রিংকস পানের ফলে এতে থাকা ক্যাফিন ও চিনি আপনাকে দ্রুত সজীব ও উদ্যমী করে তুলবে।

কিন্তু ডাক্তার মুরসালিন শেখ সাবধান করে দিয়ে বলেন প্রচুর পরিমানে ক্যাফিন ও চিনি শরীরে যাওয়ার ফলে মানুষের শরীরে নানান সমস্যা তৈরি হতে পারে যেমন স্নায়বিক দুর্বলতা, ঘুমের সমস্যা, রক্ত চাপ বৃদ্ধি পাওয়া ইত্যাদি।

পুষ্টিবিজ্ঞানী দীপশিখা আগারওয়াল বলেন, এনার্জি ড্রিংক পানের ফলে একজন মানুষের সাময়িক ভাবে শক্তি বৃদ্ধি পায় তবে যখন তার উপর এনার্জি ড্রিংকের প্রভাব কেটে যাবে তখন তিনি স্বাভাবিকের চাইতেও দুর্বল অনুভব করবেন। এনার্জি ড্রিংকে যে কুইনিন ব্যাবহার করা হয় তা মানুষের হাড়ের অনেক ক্ষতি করে।

ডাক্তার আতাহার ওয়ানি যিনি একজন দাঁত বিশেষজ্ঞ তিনি বলেন, ‘আপনাকে এনার্জি ড্রিংক অবশ্যই কম পান করতে হবে, যদিও পান করেন তাহলে অবশ্যই আপনার মুখ ভালো ভাবে পরিষ্কার করে নিবেন কারণ এর ফলে আপনার দাতে কেভেটি অর্থাৎ ক্ষত বা গর্ত তৈরি হতে পারে’ এনার্জি ড্রিংকের ফলে দাঁতের এনামেল ক্ষয়ে গিয়ে দাঁতে রঙ নষ্ট হয়ে যায়।

সফট ড্রিংকসের ঝাঁঝালো স্বাদ বাড়ানোর জন্যে এতে ফসফরিক এসিড ব্যবহার করা হয়। এসিড এত শক্তিশালী যে, একটা নখ এর মধ্যে ডুবিয়ে রাখলে ৪ দিন পর আর আপনি নখটাকে খুঁজে পাবেন না। তাছাড়া সফট ড্রিংকসে যে চিনি ব্যবহার করা হয়, ব্যাকটেরিয়ার প্রভাবে এটাও এসিড তৈরি করে।

এনার্জি ড্রিংকে যে ক্যাফিন দেয়া হয় তা নেশার উদ্রেগ ঘটাতে পারে। যদি কেউ নিয়মিত এনার্জি ড্রিংক পান করেন। এরপর ড্রিংকস পান করা থেকে বিরত থাকেন তাহলে নানা রকম শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে পারে যেমন আপনার ঘুম না হওয়া, হাতে পায়ে ব্যথা, মাথা ব্যথা, শারীরিক ও মানসিক অশান্তি এবং অস্থিরতা।

এ বিষয়ে শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার বান্দারকর বলেন, এনার্জি ড্রিংক শিশুদেরও নেশাগ্রস্থ করে তোলে ফলে শিশুরা এতে আসক্ত হয়ে যেতে পারে যা শিশুদের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। পিতা মাতা কে অবশ্যই তার শিশু সন্তানদের সব রকম পানীয় থেকে দূরে রাখতে হবে।

অনেক এনার্জি ড্রিংক কোম্পানি দাবি করে এনার্জি ড্রিংকে প্রচুর ভিটামিন এবং এমাইনো এসিড রয়েছে, সে হিসেবে বডি বিল্ডারদের মাঝে এনার্জি ড্রিংকের কদর অনেক বেশি। কিন্তু এতে ভিটামিন ও এমাইনো এসিড থাকলেও এর অন্যান্য ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচতে পানীয়টি পান না করাই ভলো।

ক্রীড়া পুষ্টিবিজ্ঞানী দীপশিখা আগারওয়াল আরও বলেন এনার্জি ড্রিংক ও স্পোর্টস ড্রিংক নিয়ে বিড়ম্বনায় না পড়ে আপনি যখন কাজ করে অথবা খলাধুলা করে দুর্বল অনুভব করবেন তখন বেশি করে পানি পান করুন। কারণ এ সময় আপনি এনার্জি ড্রিংক পান করলে এতে থাকা ক্যাফিন আপনাকে আরো বেশী ডিহাইড্রেট করে তুলবে।

কখনই এনার্জি ড্রিংকের সঙ্গে এলকোহল মিশিয়ে পান করবেন না। কারণ এলকোহলের সঙ্গে এনার্জি ড্রিংকের মিশ্রণের ফলে এটি আপনার শরীরের জন্য কাষতির কারণ হবে।

এনার্জি ড্রিংক ও এলকোহল একসঙ্গে মিশিয়ে পান করলে আপনার শরীরে পানিশূন্যতা তৈরি হবে যার ফলে আপনার শরীরে নানা জটিলতা দেখা দিতে পারে।

আমেরিকার ম্যাসাচুসেটসের ৫০ বছর বয়স্ক একদল নারী-পুরুষের উপর গবেষণা পরিচালনা করেছেন। যারা প্রতিদিন ১ ক্যান বা এর বেশি ড্রিংকস পান করেছেন, তাদের ওপর ৪ বছর ধরে চালানো সমীক্ষায় দেখা যায় তাদের মেটাবলিক সিনড্রোম বেড়ে গেছে ৪৪%। মেটাবলিক সিনড্রোম বাড়লে ডায়াবেটিস, হৃদরোগের ঝুঁকি যেমন বাড়ে তেমনি অকালে বুড়িয়ে যায় দেহ।

ঢাকা, ০৬ সেপ্টেম্বর (ওমেনঅাই)//এসএল//

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close