আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
রাজনীতি

প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনায় সভা ডাকল আ.লীগ

alig2_90131ওমেনঅাই: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গণসংবর্ধনা দিতে সংবর্ধনার তারিখ ও স্থান নির্ধারণে মঙ্গলবার সভা আহ্বান করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

সভাটি দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যদের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। বিকেল চারটায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে এটি অনুষ্ঠিত হবে।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার জাতিসংঘসহ বিশ্বের বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার কাছ থেকে পুরস্কার প্রাপ্তিতে দেশের পক্ষে অসামান্য অর্জন বয়ে আনার জন্য সংবর্ধনার আয়োজন করবে দলটি। বর্তমানে জাতিসংঘের ৭০তম সাধারণ অধিবেশনে অংশ নিতে নিউইর্র্য়কে অবস্থান করছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি দেশে ফিরলে এই সংবর্ধনার আয়োজন করা হবে বলে সম্পাদকমন্ডলীর একাধিক সূত্র জানান।

গতকাল সোমবার আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সম্পাদকমন্ডলীর সভার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। আর সভায় সকলকে উপস্থিত হওয়ার আহ্বান করেছেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

সভার আলোচ্য সূচি সম্পর্কে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সম্পাদকমন্ডলীর এক সদস্য রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারপ্রধান হিসেবে জাতিংসঘসহ বিভিন্ন আর্র্ন্তজাতিক সংস্থার কাছ যে পুরস্কার পেয়েছেন, তা দেশবাসীর জন্য গৌরবের। সরকারের সাফল্যের অর্জন। সাম্প্রতিক বিশ্বে শেখ হাসিনা তৃতীয় বিশ্বের একজন বিচক্ষণ বিশ্বনেতা হিসেবে নতুন ভূমিকায় অবর্তীণ হয়েছেন। উদার প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক বিজ্ঞানমনস্ক জীবনদৃষ্টি নিয়ে তিনি বাংলাদেশকে উন্নত দেশ গড়ার লক্ষ্যে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি বর্তমান বিশ্ব নেতৃত্বে বাঙালির জাতীয় ঐক্যের প্রতীক এবং ভরসাস্থল হিসেবে আস্থা অর্জন করেছেন।’

এসব কারণেই আমরা দলের কারণে তাকে সংবর্ধিত করা হবে। সভায় সংবর্ধনার তারিখ, স্থান নির্ধারণ ও করণীয় সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

দলীয় সূত্রটি আরো জানান, সভায় দুটি বিষয় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে বসবে সদস্যরা। সিদ্ধান্তের মধ্যে রয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইর্য়ক থেকে জাতিসংঘের ৭০তম অধিবেশন শেষ করে দেশে ফেরার পর হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরেই সংবর্ধনা দেওয়া হবে না পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পর তার সঙ্গে কথা বলে তারিখ ও স্থান নির্ধারণ করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত রোববার জাতিসংঘের পরিবেশ-বিষয়ক সর্বোচ্চ পুরস্কার ‘চ্যাম্পিয়নস অব দ্য আর্থ’ পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরিবেশ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় প্রধানমন্ত্রীকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়। তিনি ‘পলিসি লিডারশিপ’ ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার পান। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে এই পুরস্কার গ্রহণ করেন তিনি।

জাতিসংঘের পরিবেশ কর্মসূচির (ইউএনইপি) নির্বাহী পরিচালক অ্যাচিম স্টেইনার প্রধানমন্ত্রীর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন। পরিবেশ বিষয়ে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৪ সাল থেকে ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে এই সম্মাননা দেওয়া হয়ে থাকে।

এ ছাড়াও ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে যুগান্তকারী উদ্যোগের জন্য প্রধানমন্ত্রীকে International Telecommunication Union (ITU)-Gi ICTs in Sustainable Development Award প্রদান করা হয়।

ঢাকা,২৯ সেপ্টেম্বর (ওমেনঅাই)//এসএল//

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close