আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সারাদেশ

নারীর আত্মরক্ষার জন্য ভারতের বাজারে ‘নির্ভীক’

ওমেন আই:নারীদের আত্মরক্ষার জন্য বাজারে ‘নির্ভীক’ নামের একটি অস্ত্র ছেড়ে সমালোচনার মুখে পড়েছে ভারত সরকার। ২০১২ সালে দিল্লিতে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হয়ে নিহত মেডিক্যাল কলেজছাত্রীর স্মরণে অস্ত্রটির এ নামকরণ করা হয়েছে। নারী ও মানবাধিকারের কর্মীরা বলেছেন, এ নামকরণের মাধ্যমে আসলে ওই মেয়েটিকে অসম্মানই করা হয়েছে। এ ছাড়া নারীদের সশস্ত্র করার মধ্য দিয়ে তাদের নিরাপদ রাখা ও নিরাপত্তা বিধান করা কোনো নির্ভরযোগ্য উপায় নয়।

রাষ্ট্রায়ত্ত অস্ত্র প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়ান অর্ডন্যান্স ফ্যাক্টরি (আইওএফ) চলতি মাসের শুরুতে ‘নির্ভীক’ রিভলবারটি বাজারে ছাড়ে। টিটেনিয়াম ধাতুতে তৈরি পয়েন্ট ৩২ ক্যালিবারের ছোট ও হালকা রিভলবারটি অনায়াসেই মেয়েদের ছোট্ট হাতব্যাগে জায়গা করে নিতে পারে। এর দাম রাখা হয়েছে এক লাখ ২২ হাজার ৩৬০ রুপি। ইতিমধ্যেই আগ্রহীদের কাছ থেকে ২০টি রিভলবারের ফরমায়েশ পেয়েছে আইওএফ। তারা জানায়, ৮০ শতাংশ ফরমায়েশই এসেছে নারীদের কাছ থেকে। নারী ও মানবাধিকারের কর্মীরা সরকারি এ সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বলেছেন, এই রিভলবার বাজারে ছাড়ার মাধ্যমে কর্তৃপক্ষ বুঝিয়ে দিল যে তারা আসলে নারীদের নিরাপত্তার বিষয়টি কতখানি ‘ভুলভাবে’ দেখছে।

দেশজুড়ে নারীর প্রতি যে মাত্রায় সহিংসতা ঘটছে, তা মোকাবিলায় কর্তৃপক্ষের এ উদ্যোগ ‘সম্পূর্ণ ভুল’।

মনিপুর উইমেন গান সারভাইভরস নেটওয়ার্কের কর্মকর্তা বীণালক্ষ্মী নেপরাম পিস্তলের নাম ওই তরুণীর স্মরণে রাখার বিষয়ে গত রবিবার বলেন, ”এর মাধ্যমে আসলে ‘নির্ভয়ার’ স্মৃতির প্রতি অসম্মান করা হয়েছে।” মেডিক্যাল কলেজছাত্রী ধর্ষণের পর দেশজুড়ে আন্দোলন-বিক্ষোভ যখন ছড়িয়ে পড়ে, তখন গণমাধ্যমে ওই মেয়েটিকে ‘নির্ভয়া’ নামে অভিহিত করা হয়। ভারতীয় আইনে ধর্ষিতার আসল নাম প্রকাশ করা নিষিদ্ধ। বীণালক্ষ্মী আরো বলেন, ‘এ ছাড়া আমাদের গবেষণায় দেখা গেছে, কোনো ব্যক্তি যদি অস্ত্র বহন করে তবে তার গুলিতে নিহত হওয়ার ঝুঁকি স্বাভাবিকের চেয়ে ১২ গুন বেশি। নারীদের জন্য রিভলবার তৈরি করার মধ্য দিয়ে বোঝা গেল ভারত সরকার নারীদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হয়েছে। নারীকে সশস্ত্র করার মাধ্যমে তাদের নিরাপত্তা বিধান করা কোনো নির্ভরযোগ্য উপায় নয়।’ সূত্র : এএফপি।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close