আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সারাদেশ

অবশেষে বুড়িগঙ্গায় মিললো নীরবের নিথর দেহ

nirob wmnওমেনআই:রাজধানীর কদমতলী থানার পালপাড়া এলাকায় সাইফুল ইসলাম নীরব নামে ছয় বছর বয়সী শিশুটির নিথর দেহ পাওয়া গেছে বুড়িগঙ্গায়।রাত আটটার ২০ মিনিটের দিকে শিশুটির লাশ ঘটনাস্থল থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে শ্যামপুর লঞ্চ ঘাট এলাকায় বুড়িগঙ্গার স্লুইসগেট থেকে তার নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়।

পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা ডালিয়া রাত নয়টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শিশুটির পিতার নাম রেজাউল করিম।

এর আগে দুপুর সাড়ে তিনটার দিকে শিশুটি শ্যামপুর ইউনিয়নের পালপাড়ার শিল্প কারখানার বর্জ্যের একটি ম্যানহোলে পড়ে নিখোঁজ হয়।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একদল কর্মী ঘটনাস্থলে গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধারে কাজ করে।রাত সাড়ে আটটার দিকে স্লুইসগেট এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধারের কথা নিশ্চিত করেন কদমতলী থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী।

স্যুয়ারেজ লাইনে নীরবের পড়ে যাওয়ার খবরই পেয়েই সেখানে লাফিয়ে পড়েন তার মা নাজমা বেগম। কিছুক্ষণ চেষ্টা করে তিনি ব্যর্থ হলে স্থানীয়রাও শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা করেন। এরইমধ্যে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ফায়ার সার্ভিস।

পানির তলদেশে দেখার জন্য এই বাহিনীর কাছে বিশেষ আলোর ব্যবস্থা দেখালেও ওই স্যুয়ারেজ লাইনের শিল্প-কারখানার বর্জ্য মিশ্রিত কালো পানির জন্য তাদের যন্ত্র কাজে আসছিল না।

ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মকর্তা জানিয়েছিলেন, তারা ঘটনাস্থল থেকে এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে তাদের অভিযান চালাচ্ছিলেন। মূলত স্যুয়ারেজ লাইনের প্রত্যেকটা পিক ধরে ধরে এগোচ্ছিলেন তারা।

ওই স্যুয়ারেজ লাইনের তীব্র স্রোতে শিশু নীরব ভেসে বুড়িগঙ্গায়ও চলে যেতে পারে- তাকে জীবিত উদ্ধারের আশা নিয়ে এমন আশঙ্কাও ছিল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের। সে আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে বুড়িগঙ্গা স্লুইস গেটেও নজর রাখছিলেন তারা।

কিন্তু অভিযান শুরুর কয়েক ঘণ্টা পর ঘটনাস্থলে থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে শ্যামপুর লঞ্চ ঘাট এলাকা থেকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয় নীরবকে।

ঢাকা,০৯ ডিসেম্বর (ওমেনআই২৪ডটকম)//এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close