আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

আত্মঘাতী সংঘাত আর নয় : বিজিবিকে প্রধানমন্ত্রী

imagesওমেনআই: বিডিআর বিদ্রোহের কথা ইঙ্গিত করে বাহিনীটির সদস্যদের ভবিষ্যতে আত্মঘাতী সংঘাত এড়িয়ে চলার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ) সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনারা সতর্ক থাকবেন, ভবিষ্যতে কখনও যেন এমন আত্মঘাতী সংঘাত আর না হয়।’

পিলখানায় বিজিবি দিবস-২০১৫ উদযাপনের কুচকাওয়াজ শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রবিবার সকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘২০০৯ সালের ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি পিলখানায় সংঘটিত বিদ্রোহ ও হত্যাকাণ্ড এ বাহিনীর ইতিহাসের একটি কালো অধ্যায়। সে সময় সরকার গঠনের পরপরই বিডিআর বিদ্রোহ ও হত্যাকাণ্ডের মতো ন্যাক্কারজনক, অস্থিতিশীল পরিস্থিতি আমাকে মোকাবেলা করতে হয়। আপনাদের সম্মিলিত সহযোগিতায় সে দিনের সংকটময় পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে পেরেছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘বিডিআর বিদ্রোহের সাথে সম্পৃক্ত উচ্ছৃঙ্খল ও বিপথগামী বিডিআর সদস্যদের আইনের আওতায় এনে বিচারের পর এ বাহিনী এখন সম্পূর্ণ কলঙ্কমুক্ত হয়েছে। সবার আন্তরিক প্রচেষ্টায় বিজিবি গতিশীল ও আধুনিক বাহিনীতে পরিণত হয়েছে। আপনাদের কঠোর পরিশ্রমে এ বাহিনীর সুনাম ও মর্যাদা পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমি বিশ্বাস করি আপনাদের এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে।’

বিজিবিকে একটি আধুনিক ও যুগোপযোগী সীমান্তরক্ষী বাহিনী হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ আইন-২০১০ পাস করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিজিবির অপারেশনাল কার্যক্রমকে বেগবান ও গতিশীল করতে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আমি বিগত ২৩ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে বিজিবির পতাকা উত্তোলন করেছিলাম। এরপর বিজিবির নতুন সাংগঠনিক কাঠামো অনুযায়ী ৪টি রিজিয়ন সদর দপ্তর স্থাপন করে কমান্ড স্তর বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে এই বাহিনীকে আরও গতিশীল ও ফলপ্রসূ করা হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সীমান্ত রক্ষাসহ এ বাহিনীর ওপর অর্পিত অন্যান্য দায়িত্ব যেমন আইনশৃঙ্খলা রক্ষা, বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা, দুর্ঘটনা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও জরুরি পরিস্থিতি মোকাবেলাসহ দেশ গঠনমূলক কাজে ভূমিকা ও পেশাদারিত্ব আজ সর্ব মহলে প্রশংসিত।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিজিবিতে এ বছরই প্রথমবারের মতো ১০০ জন নারী সৈনিক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বিজিবির অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিজস্ব এয়ার উইং সৃজনের কাজ পূর্ণ গতিতে এগিয়ে চলছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এখন পরমুখাপেক্ষী নই। বিশ্ব সভায় মাথা উঁচু করে কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জনকারী দেশ। (আমরা) কারও কাছে মাথা নিচু করে চলব না।’

ঢাকা, ২০ ডিসেম্বর (ওমেনআই২৪ডটকম)//এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close