আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিকউন্নয়নে নারী

প্রতিবন্ধী দপ্তরের দায়িত্ব পেলেন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নারী

ওমেন আই :
প্রতিবন্ধীদের অলিম্মিক ‘প্যারালম্পিক’-এ স্বর্ণজয়ী ভেরেনা বেন্টেলে জার্মান সরকারের প্রতিবন্ধীসংক্রান্ত দপ্তরের দায়িত্ব পেয়েছেন৷ প্রাক্তন সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী উলা শ্মিট মনে করেন, এই নিয়োগ সঠিক হয়েছে৷

রোমাঞ্চকর চ্যালেঞ্জটা এসে যায় তখনই, যখন সেটা হয় অপ্রত্যাশিত৷” জার্মানির সমাজ কল্যাণমন্ত্রী আন্দ্রেয়া নাহলেস প্রতিবন্ধীদের দেখভাল করার দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তাব দিলে, একথাই মনে হয়েছে ভেরেনা বেন্টেলের৷ চিন্তাভাবনার জন্য কিছুটা সময় চেয়ে নেন তিনি৷

জীবনে অর্জন কম নয়

৩২ বছর বয়সি ক্রীড়াবিদ বেন্টেলের জন্ম বাভেরিয়ার লিন্ডাউতে৷ জীবনে অনেক কিছুই অর্জন করেছেন তিনি৷ জন্মান্ধ এই নারী জার্মানির প্রতিবন্ধী ক্রিড়াজগতে বিশেষ স্থান করে নিয়েছেন৷ প্যারালম্পিকের দুটি স্কি-ডিসিপ্লিনে ১২টি স্বর্ণপদক ও ওয়ার্ল্ডকাপে চারটি স্বর্ণপদক জয় করেন তিনি৷

তবে নতুন দায়িত্বভারও কম গুরুত্বপূর্ণ নয়৷ তাই কাজটা হাতে নেওয়ার আগে যথেষ্ট চিন্তাভাবনা করতে হয়েছে তাঁকে৷ অবশ্য এই আস্থার জন্য খুশিও হন তিনি৷

খেলাধুলার পাশাপাশি বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মকাণ্ডেও যুক্ত তিনি৷ এছাড়া একটি বইও লিখেছেন৷ ফেব্রুয়ারিতে এটি প্রকাশিত হবে৷ ব্যক্তিগত লক্ষ্য কীভাবে অর্জন করা যায়৷ এই নিয়ে লেখা বইটি৷

প্রতিবন্ধীবান্ধব আইন-কানুন চান

প্রতিবন্ধীদের সরকারি দূত হওয়ার পর ভেরেনার লক্ষ্য হবে নতুন আইন-কানুনগুলি যেন প্রতিবন্ধীবান্ধব হয়৷ প্রতিবন্ধীদের অধিকার আদায়েও সচেষ্ট হবেন তিনি৷ বেন্টেলে অবশ্য অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কোনো রাজনীতিক নন৷ ২০১২ সালে তিনি এসপিডি-র সদস্য হন৷ তাঁর পূর্বসূরি হবার্ট হ্যুপে ২০ বছর ধরে সংসদের নিম্নকক্ষের সাংসদ হিসাবে কাজ করছেন৷ নতুন দায়িত্বটা বেন্টেলের মতো অনভিজ্ঞ তরুণী ক্রীড়াবিদের পক্ষে কি একটু বেশি হয়ে যায় না? মোটেই নয়, এ কথা বলেন সংসদের নিম্ন কক্ষের ভাইস প্রেসিডেন্ট উলা শ্মিট৷

প্রতিবন্ধীরা অক্ষম নয়, তাঁদের দক্ষতা কখনো কখনো রীতিমতো বিস্ময়কর

তাঁর ভাষায়, ‘‘এই ধরনের সফল খেলোয়াড় হতে হলে প্রয়োজন যথেষ্ট কর্মশক্তি, শৃঙ্খলা ও দৃঢ়সংকল্প ৷ তা না হলে এ সব অর্জন করা তাঁর পক্ষে সম্ভব হতো না৷ উলা স্মিট ডয়চে ভেলের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে জানান, তিনি ভেরেনা বেন্টেলেকে ব্যক্তিগতভাবে চেনেন৷ গত বছরগুলিতে রাজনৈতিক ক্ষেত্রেও সক্রিয় ছিলেন ভেরিনা৷ সেবা শুশ্রূষার চেয়ে প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রয়োজন সুষ্ঠু পরিকাঠামো৷ তাহলে তাঁরাও সামাজিক কর্মকাণ্ডে যোগ দিতে পারবেন৷ ভেরেনা তাঁর ক্রীড়াজগতে এসব ভালোভাবে শিখেছেন৷ তাই এখন তিনি তা রাজনৈতিক জগতেও কাজে লাগাতে পারবেন, মনে করেন উলা শ্মিট৷

স্বাগত জানিয়েছে প্রতিবন্ধীসমিতি

স্টুটগার্টের শারীরিক প্রতিবন্ধীসমিতির সদস্যরা ভেরেনা বেন্টেলের নিয়োগে আনন্দিত৷ সমিতির মুখপাত্র কার্মেন কোর বলেন, ‘‘যাঁর নিজের শারীরিক প্রতিবন্ধকতা রয়েছে, তিনি অন্যান্য প্রতিবন্ধীদের অবস্থা ভালোভাবে অনুভব করতে পারেন৷”

বেন্টেলে প্রতিবন্ধীদের দৈনন্দিন জীবন, সমাজ, ও কর্মক্ষেত্রের সমস্যা জানেন৷ যেমন হুইল চেয়ার চালকদের বাস ট্রামে চলাচলের অসুবিধা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধীদের সহায়তাকারীদের সমস্যা ইত্যাদি ব্যাপারে তাঁর অভিজ্ঞতা আছে৷

বাধাবিপত্তি দূর করা সহজ হবে

রাজনীতিবিদ উলা শ্মিট মনে করেন, ভেরেনা প্রতিবন্ধীদের নানা বাধাবিপত্তি দূর করতে সাহায্য করতে পারবেন৷ প্রতিবন্ধীসমিতিগুলির কাছ থেকেও সহায়তা আশা করতে পারেন ভেরেনা বেন্টেলে৷ ‘‘আমরা বিশেষজ্ঞদের অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ দিয়ে তাঁকে সাহায্য করতে প্রস্তুত৷ এ ব্যাপারে আমাদের দজ্ঞতাও আছে৷” জানান জার্মানির প্রতিবন্ধী সংঘের প্রধান ইলিয়া সাইফার্ট৷ ইতিমধ্যে বড় বড় অনুষ্ঠানে তাঁর কমনীয় ও বুদ্ধিদীপ্ত দক্ষতা প্রমাণ করতে পেরেছেন এই সফল নারী৷ আশা করা যায়, এই দক্ষতা দিয়ে সরকারকেও প্রতিবন্ধীদের ব্যাপারে তৎপর হতে সাহায্য করবেন ভেরেনা বেন্টেলে৷
সূত্র : ডয়চে ভেলে

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close