আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিক

কারাগার থেকে জেনেভার শান্তি আলোচনায়

ওমেন আই:
সিরিয়ার একজন সংগ্রামী নারীর নাম নউরা আল আমির। সরকার বিরোধী আন্দোলনের জন্য এক সময় তাকে কারাবন্দীও থাকতে হয়েছে। তবে সময়ের পরিক্রমায় নউরা আল আমির এখন জেনেভায় সরকারের সাথে শান্তি আলোচনায় অংশ নেয়াদের বিদ্রোহীদের প্রতিনিধি দলের একজন। আল জাজিরা

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অনুষ্ঠিত শান্তি আলোচনায় অংশ নেয়া বিদ্রোহীদের প্রতিনিধি দলের সহ সভাপতি হিসাবে কাজ করছেন ২৬ বছর বয়সী নউরা। ২০১২ সালে সরকারবিরোধী আন্দোলনের জন্য গ্রেফতার হন তিনি। এরপর দামাসকাস এবং হমসের কুখ্যাত কারাগারে ৬ মাস বন্দী থাকার পর মুক্তি পান। এবারের শান্তি আলোচনার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে এক প্রতিক্রিয়ায় নউরা জানান, সরকারের প্রতিনিধি দলের দিকে তাকালেই তিনি দেখতে পান কারাগারে তাকে জিজ্ঞাসাবাদকারীদের সেই ভয়ংকর চোখ।
তিনি বলেন, এখানে সরকারের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা এসেছেন অবৈধ বাশার সরকারের পক্ষে কথা বলতে যিনি কিনা কয়েক হাজার আন্দোলনকারীকে কারাগারে বন্দী করে রেখেছেন, যিনি কিনা হাজার হাজার মানুষকে হত্যা করে চলেছেন। সরকারের প্রতিনিধিদলের প্রতি তিনি ঘৃণার চোখেই তাকিয়েছেন বলে জানান নউরা।
সরকারবিরোধী আন্দোলনে সরাসরি অংশ নেয়া এবং আন্দোলনকারীদের বিভিন্নভাবে সহায়তা করার অপরাধে ২০১২ সালের মে মাসে তাকে আটক করে সরকার। এরপর তাকে দামাসকাসেরর কুখ্যাত কারাগারে রেখে অমানবিক নির্যাতন করতো সেনাবাহিনীর সদস্যরা। কারাগারে তার ওপর অমানবিক নির্যাতনের কথা বলার সময় তিনি বলেন, আমার ওপর যে নির্যাতন হয়েছে তার থেকেও অনেক বেশি অত্যাচার হচ্ছে বর্তমানে বিভিন্ন কারাগারে বন্দী নারীদের ওপর।
ছয় মাস জেল খেটে মুক্তি পাওয়ার পর নউরা চলে যান পার্শ¦বর্তী দেশ তুরস্কে। সেখানে সীমান্ত এলাকায় থেকে তিনি সাহায্য করতে থাকেন আন্দোলনকারীদের। পরবর্তীতে আবারো দেশে ফিরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিশেষ ভূমিকা রাখার পাশাপাশি সরকারবিরোধী আন্দোলনে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করছেন নউরা আল আমির।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close