আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সারাদেশ

ধর্ষণের জন্য নারীরাই দায়ী!

ওমেন আই :

ভারতের মহারাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) নেত্রী ও রাজ্যের মহিলা কমিশনের সদস্য আশা মির্জে ধর্ষণের জন্য নারীদেরকেই দায়ী করেছেন । নারীরা তাদের পোশাক, আচরণ এবং স্থানকাল না বুঝে চলাফেরার কারণে ধর্ষণের শিকার হয় বলে মন্তব্য করেন তিনি ।
আশা মির্জের এ মন্তব্যে বিভিন্ন মহলে সমালোচানার ঝড় উঠেছে।

মঙ্গলবার মহারাষ্ট্রের নাগপুরে এনসিপি’র নারীকর্মীদের একটি অনুষ্ঠানে মির্জে দিল্লির বাসে ধর্ষণের শিকার হয়ে মারা যাওয়া তরুণী (নির্ভয়া) এবং শক্তি জুটমিলে এক নারী সাংবাদিক ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষিতাদেরকেই অনেকাংশে দায়ী বলে মত দেন। এক প্রশ্নের জবাবে নির্ভয়ার বিরুদ্ধেই পাল্টা প্রশ্ন করে মির্জে বলেন, “নির্ভয়া রাত ১১ টায় কেন বন্ধুর সঙ্গে সিনেমা দেখতে বেরিয়েছিল? সেটা কি খুব জরুরি ছিল?”

মুম্বাইয়ের শক্তি জুটমিলে ধর্ষণের শিকার ফটোসাংবাদিকের বিরুদ্ধেও প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, “সন্ধ্যা ৬ টায় নির্জন ওই কারখানায় যাওয়ার কি খুব প্রয়োজন ছিল”?

“নারীদেরকে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে। কোনো আচরণের কারণে তারা নিজেরই নিজেদের বিপদ ডেকে আনছে কিনা তা মাথায় রাখতে হবে,” বলেন মির্জে।

নারী অধিকার কর্মী, ক্ষমতাসীন কংগ্রেস, বিরোধী দল বিজেপি তার এ বক্তব্য ‘মেনে নেয়া যায় না’ বলে মন্তব্য করেছে। এমনকি মির্জের নিজের দলের সদস্যরাও এ মন্তব্যের দায় এড়িয়েছে।

এনসিপি’র এমপি সুপ্রিয়া সুল সাংবাদিকদের কাছে মির্জের মন্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন। মির্জের এ বক্তব্য তার ব্যক্তিগত মতামত, দলের নয় বলে জানান তিনি। এ ধরনের মন্তব্য করা উচিত হয়নি বলেও মন্তব্য করেন সুপ্রিয়া।

মহারাষ্ট্রে ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি) এবং কংগ্রেসের জোট সরকার রয়েছে।

কংগ্রেস নেত্রী রিতা বহুগুণা জোসি বলেন, এনসিপি’র নেত্রী এবং একইসঙ্গে মহারাষ্ট্র ‘স্টেট উইমেন কমিশন’ এর সদস্য হিসাবে মির্জে এ ধরনের মন্তব্য করতে পারেন না। তার নারীদের ক্ষমতায়ন নিয়ে কথা বলা উচিত।

ওদিকে, ‘অল ইন্ডিয়া উইমেনস অ্যাসোসিয়েশন’ এর সেক্রেটারী কবিতা কৃষ্ণা বলেন, রাজনৈতিক কোনো ব্যক্তি এ ধরনের কথা বলা মানে ধর্ষণের পক্ষেই কথা বলা। এমন মন্তব্য করার পর আশা মির্জে আর মহিলা কমিশনের সদস্য থাকার যোগ্য নন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close