আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধ

বগুড়ায় স্কুল ছাত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

ওমেন আই:
বগুড়ার শাজাহানপুরে লিমি আক্তার (১০) নামের এক ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের বড়নগর গ্রামে গতকাল সোমবার দিবাগত গভীর রাতে এই নির্মম ঘটনা ঘটেছে। নিহত লিমি আক্তার (১১) বড়নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিহত লিমির পিতা শাহীনকে (৪৫) আটক করেছে ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বড়নগর গ্রামের মকবুল হোসেন সরকারের ছেলে শাহীন (৪৫) প্রতিদিনের মত গতকাল সোমবার রাতেও ছোট মেয়ে লিমি আক্তারকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। ওই সময় লিমির মা বাড়িতে ছিলেন না। রাত ১টার দিকে লিমির বাবা শাহীনের চিত্কারে প্রতিবেশীরা এসে লিমিকে গলায় গামছা পেছানো অবস্থায় মৃত পড়ে থাকতে দেখে।

প্রতিবেশী তছলিম উদ্দিন জানান, গভীর রাতে শাহীনের চিত্কার শুনে তার বাসায় গেলে শাহীন জানান, অবিরউল্লার ৪ ছেলে তার মেয়েকে হত্যা করেছে। কিন্তু অবিরউল্ল¬ার ৪ ছেলে মধ্যে ২ ছেলে দিনমজুরীর কাজে এলাকার বাইরে অবস্থান করছে। স্থানীয়রা জানান, ৭/৮ মাস পূর্বে অবিরউল্লা¬ার গরু চুরির অভিযোগে শাহীনকে অভিযু্ক্ত করে ইউনিয়ন পরিষদে বিচার-শালিস করা হয়। এক পর্যায়ে অবিরউল্ল¬ার ছেলেরা শাহীনকে মারপিট করে। এ ঘটনায় শাহীন থানায় মামলা দায়ের করেন। প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতেই নিজ মেয়েকে হত্যা করেছে বলে দাবি করেন স্থানীয়রা।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম টুকু জানান, ঘরের দরজা-জানালা অক্ষত থাকা অবস্থায় একই বিছানায় বাবার পাশে ঘুমিয়ে থাকা একটি মেয়েকে অন্য কেউ খুন করে যাবে এটা রহস্যজনক। অন্যকে, ফাঁসাতে এই নির্মম হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে তার ধারণা। এ দিকে লিমির বাবা শাহীন এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলতে রাজী হননি।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মান্নান বলেন, স্থানীয়দের বক্তব্য ও ঘটনার বিবরণে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে লিমির বাবা লিমিকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করতে পারে। একই বিছানায় থাকার পরও বাইরের কেউ হত্যা করে যাবে এমন ঘটনা রহস্যজনক। তবে বিষয়টি গভীর ভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। শাহীনকে জিঞ্জাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে ।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close