আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
লাইফ স্টাইল

ঘুমানো উচিত যেমন বালিশে

ওমেন আই :
ঘুমানোর সময় বেশিরভাগ মানুষেরই অত্যন্ত প্রিয় বস্তুটি হচ্ছে বালিশ। তবে শোয়ার জন্য বালিশ কেমন হওয়া উচিত, এ সম্পর্কে যথেষ্ট বিতর্ক আছে। কেনই বা বালিশ নেয়া উচিত, এ নিয়েও তর্ক কম হয় না।

মানুষের মাথা থেকেই বেরিয়েছে নিজেদের এই সুখ স্বাচ্ছন্দ্যের উপকরণ বালিশ ব্যবহারের ধারণাটি। চিকিৎসাবিজ্ঞানেও বালিশকে ঘুমাবার ও বিশ্রামের সময় প্রয়োজনীয় উপকরণ হিসেবে বর্ণণা করা হয়েছে। তাই বালিশের ব্যবহার বিজ্ঞানসম্মতভাবেই করা উচিত।

বালিশ এমনভাবে তৈরি করা উচিত যা খুব উঁচু হবে না। এর নরম বা শক্তভাব, ঘাড় ও দেহের কোনো অংশে যাতে সমস্যা সৃষ্টি না করে সেদিকে লক্ষ্য রাখা উচিত। বর্তমানে সময়ের সঙ্গে ও আধুনিকতার স্পর্শে বালিশের গঠন ও প্রকৃতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

পূর্বে তুলা দিয়েই বালিশ হতো। তাও আবার শিমুল তুলা। সাধারণত বালিশ কোমল হওয়াই বাঞ্ছনীয়। তাই বলে খুব নরম বা খুব শক্ত কোনোটাই ঠিক নয়। এখন শিমুল তুলা ছাড়াও ব্যবহৃত হচ্ছে সিনথেটিক ফাইবার।

বালিশের গঠনগত দিকটি কেমন তাও মাথায় রাখতে হবে। যাদের ঘাড়ের সমস্যা অর্থ্যাৎ স্পন্ডালোসিস আছে তাদের উঁচু বালিশ অথবা একদম বালিশ ব্যবহার না করলে ফিক ব্যথা হতে পারে। এটা ঘটে ঘাড়ের সার্ভাইকাল স্পাইনের কার্ভেচারের তারতম্যের কারণে।

বালিশ আমরা ব্যবহার করি আরামের জন্যই। মানুষের সহজাত প্রবৃদ্ধি শোয়ার সময় মাথাটা একটু উচুতে রাখা। পাশ ফিরে শোয়ার সময়ও বালিশের ভূমিকা বোঝা যায়।

মানুষের শিরদাঁড়া গঠনগতভাবেই তিনটি ভাগে ভাগ করা হয়- সার্ভাইকাল, থোরাসিক ও লাম্বার। শিরদাঁড়ার কতগুলো কার্ভেচার বা বাঁক আছে। ঘাড়ের গঠন প্রকৃতি বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়, এটি আটটি কশেরুকা নিয়ে গঠিত হয়েছে এবং এই হাড়গুলোর বিন্যাস সামনের দিকে ঝুঁকে থাকে। তাই সার্ভাইকাল লর্জেসিস স্বাভাবিক রাখার জন্য বালিশের আকৃতি প্রকৃতিগতভাবে বেশি নরম, শক্ত, উচু বা পাতলা কোনোটাই কাম্য নয়।

বালিশের উচ্চতা বেশি হলে তা শরীরসংস্থান বা অ্যানাটমিতে বিঘ্ন ঘটে। এতে ঘাড়েও ব্যাথার সৃষ্টি হয়। হোটেল বা ট্রেনে মানুষ যে বালিশ ব্যবহার করেন, তাতেও ঘাড়ে ব্যথা হতে পারে। পরবর্তীকালে বিভিন্ন উপসর্গও দেখা দিতে পারে। যে বালিশে আরাম অনুভব হয়, শুধু সেই বালিশই ব্যবহার করা উচিত।

আর যে কথাটি অবশ্যই মনে রাখতে হবে তা হলো, আমরা মাথার জন্য বালিশ নিই না, বালিশ নিই ঘাড়ের সুবিধার জন্য। শরীরের ব্যস্ততম পেশি ঘাড়ের পেশি। এই পেশিটির কাজ মাথাকে সোজা রাখা এবং ঘাড়ের হাঁড়কে সোজা থাকতে সাহায্য করা। এই ঘাড়ের পেশিকে উপযুক্তভাবে বিশ্রাম দেয়াই বালিশ ব্যবহারের লক্ষ্য।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close