আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সারাদেশ

মেলার নাম বউমেলা

ওমেন আ্ই: মেলার নাম বউমেলা। এই মেলার সব ক্রেতাই নারী ও শিশু। মূলত পুরুষ ছাড়া নারীরা যাতে মেলায় এসে নিজের পছন্দের জিনিস কিনতে পারে, সে জন্যই আয়োজন করা হয় বউমেলার। যেহেতু এই মেলার সব ক্রেতাই নারী ও শিশু তাই স্থানীয়ভাবে এই মেলা বউমেলা হিসেবে পরিচিত।

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নে পোড়াদাহ মেলার দ্বিতীয় দিনে আয়োজন করা হয় বউমেলার। বৃহস্পতিবারই ছিল বউমেলা। হাজার হাজার নারীর ঢল নামে মেলায়। বিভিন্ন বয়সীদের ভিড়ে মেলা হয়ে ওঠে প্রাণচাঞ্চল। প্রসাধনীসহ বিভিন্ন পণ্য কেনাকাটা করেন নারীরা।

জানা যায়, প্রায় ৪০০ বছর আগে গাবতলী উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের পোড়াদহ নামক স্থানে সন্ন্যাসীর মেলা শুরু হয়। তখন থেকে বিচিত্র ধরনের মাছ, মিষ্টির সমাহার ঘটে। এছাড়া মেলায় কাঠের ফার্নিচার বেচাকেনা হয়। ফাল্গুন মাসের প্রথম বুধবার অথবা মাঘ মাসের শেষ বুধবার মেলা বসে। মেলাটি একদিনের হলেও তা তিনদিন পর্যন্ত চলে। বুধবার মূল মেলার পরদিন বৃহস্পতিবার সকাল থেকে একই স্থানে আয়োজন করা হয় বউমেলার।

এলাকায় রেওয়াজ বা রীতি প্রচলিত রয়েছে যে, সারা বছর এলাকার মেয়ে জামাইকে দাওয়াত না দিলেও এ মেলার সময় অবশ্যই মেয়ে জামাইকে দাওয়াত করতে হবে। তাই মেলা উপলক্ষ্যে দাওয়াত দিয়ে মেয়ে ও মেয়ে জামাইকে নিয়ে আসতে হয়। মেলায় তারা নিজেদের পছন্দের কসমেটিক্স, চুড়ি, ফিতা, দুল, নাকের নলক কিনে নেয়।

মেলার দোকানী ফুলমতি জানান, সকাল থেকেই প্রচুর কেনাবেচা হচ্ছে। পোড়াদহ মেলার প্রথম দিনে পুরুষদের প্রচুর ভিড় হয়ে থাকে বলে নারীরা ঢুকতে পারে না। তাই মেলা কমিটির আয়োজনে দ্বিতীয় দিন নারীদের জন্য মেলা বসানো হয়। এ মেলাকে বউমেলার নামকরণ করা হয়। শুধু নারীরাই কেনাকাটা করে থাকে এই দিন।

রেশমা বেগম জানান, বিভিন্ন জেলায় সারা বছর যারা মেলা করেন তারা এই বউমেলায় পসরা সাজিয়েছেন। রংপুর-দিনাজপুর-নাটোর-রাজশাহীসহ বিভিন্ন জেলার ব্যবসায়ীরা এ মেলায় অংশ নিয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close