আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধ

৪৮ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে মামলা করার নির্দেশ

ওমেন আই: মুন্সীগঞ্জে ধর্ষণের পর এক কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় ‘ধর্ষক’ ও মেয়েটির আত্মহত্যার জন্য দায়ীদের বিরুদ্ধে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ‘আইনের যথাযথ ধারায়’ মামলা করতে বলেছে হাই কোর্ট।

জনস্বার্থে দায়ের করা একটি রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি করে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি মো. হাবিবুল গণির বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেয়।
মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর থানার ওসি মাহবুবুর রহিমকে এই আদেশ বাস্তবায়ন করে ১০ দিনের মধ্যে হাই কোর্টে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি ওই ঘটনায় নিজের ভূমিকা ব্যাখ্যা করতে ২ এপ্রিল ওসি মাহবুবকে আদালতে হাজির হতে হবে।
‘শ্রীনগরে অপমানের জ্বালা সইতে না পেরে ধর্ষিতার আত্মহত্যা’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন যুক্ত করে রিট আবেদনটি করা হয়। প্রতিবেদনটি সাপ্তাহিক একুশের খবর নামে একটি স্থানীয় পত্রিকায় গত ১৬ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত হয়।
প্রতিবেদনে বলা হয়, ওসি অভিযোগ পাওয়ার পরও ঘুষ নিয়ে ওই মামলা নথিভুক্ত করেননি।
ওসির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তদন্তে আদালত সাত দিনের মধ্যে বেসামরিক ব্যক্তিদের নিয়ে একটি কমিটি করতে স্বরাষ্ট্র সচিবকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। কমিটিকে ৩০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার নারীকে যথাযথ আইনি সুরক্ষা দেয়া ও ধর্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরে বিবাদিদের নিষ্ক্রিয়তা/ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- তা জানতে চেয়ে একটি রুলও জারি করেছে আদালত।
পাশাপাশি দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার জন্য শ্রীনগরের ওসির বিরুদ্ধে কেন বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে না- তাও জানাতে বলেছেন বিচারক।
স্বরাষ্ট্র সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার ও শ্রীনগর থানার ওসিকে দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে হবে।
মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের পক্ষে অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ রোববার রিট আবেদনটি করেন। রিটে বাদী হিসাবে রয়েছেন, অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান সিদ্দিকী ও এখলাস উদ্দিন ভূঁইয়া।
অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদই আদালতে আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মোখলেসুর রহমান।
রিটে যুক্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, শ্রীনগরে উপজেলার পূর্ব বাড়ৈখালীর এক কলেজ ছাত্রীকে গত ১২ ফেব্রুয়ারি ধর্ষণ করে প্রতিবেশী সালাম শেখ (৫২)। স্থানীয় ইউপি সদস্য জাহের মোড়ল ও কালাম ৩ লাখ টাকা জরিমানা করে ধর্ষককে ছেড়ে দেন। পরদিন কালামের সহায়তায় ধর্ষকের ছেলেমেয়েটির বাবাকে এলাকা ছেড়ে যেতে হুমকি দেয়।
হুমকির দুইদিন পর মেয়েটি আত্মহত্যা করে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close