আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অর্থনীতি

জিএসপি ফেরাতে আরো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে

ওমেন আই :
আমেরিকার বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের শুল্কমুক্ত সুবিধা (জিএসপি) সুবিধা ফিরে পেতে বাংলাদেশকে আরো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে জানিয়েছেন ঢাকায় দেশটির রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা।

বুধবার সচিবালয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে কয়েকটি পশ্চিমা দেশের কূটনীতিকদের বৈঠক হয়। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মজীনা বলেন, “আমেরিকার বাজারে বাংলাদেশের জিএসপি ফিরে পেতে আরো কিছু চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম হলো ইপিজেডগুলোতে শ্রম আইন বাস্তবায়ন করা।”

তিনি বলেন, “জাতীয় শ্রম আইন সংশোধের করে প্রচলিত শ্রম আইন যুগোপযোগী করে ইপিজেড এ কার্যকর করতে হবে।”

মজীনা আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, “বাংলাদেশের শর্ত পূরণের তৎপরতায় আমরা অভিভূত। আশা করি বাংলাদেশ আমাদের সব শর্ত পূরণ করবে।”

তিনি বলেন, “পাঁচ রাষ্ট্রদূত, আইএলও প্রতিনিধি এবং বাংলাদেশের তিন সচিব পর্যায়ের এ বৈঠক বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাতকে সফলতার দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।”

বাণিজ্য সচিব মাহবুব আহমেদ, পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক, শ্রম সচিব মিকাইল শিপারের সঙ্গে বৈঠকে মজীনা ছাড়াও ইউরোপীয় ইউনিয়নের দূত উইলিয়াম হানা, নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত জার্বেন ডি জন, কানাডার রাষ্ট্রদূত হিদার ক্রুডেন ও স্পেনের রাষ্ট্রদূত স্লুইস তেজাডা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ২৪ নভেম্বর তাজরীন ফ্যাশনসে আগুনে ১১২ জনের মৃত্যু এবং গত বছরের ২৪ এপ্রিল রানা প্লাজা ধসে ১১৩২ জনের প্রাণহানির ঘটনায় বাংলাদেশে পোশাক শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিয়ে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এরপর গত বছর জুনে আমেরিকার বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার (জিএসপি) স্থগিত করে দেশটি। এই সুবিধা ফিরে পেতে বাংলাদেশের জন্য বেশ কিছু শর্তসহ একটি কর্মপরিকল্পনা ঘোষণা করে ওবামা সরকার।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close