আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
খেলাধুলাস্লাইড

পেরেরা তাণ্ডবে লড়াকু স্কোর শ্রীলঙ্কার

ওমেনআই ডেস্ক : আগে এ ধরনের শিরোনাম বাংলাদেশের জন্য লিখতে হতো। কিন্তু এখন সময় বদলেছে। ওয়ানডেতে বাংলাদেশ এখন শক্তিশালী দল। যার জন্য এই শিরোনাম, সেই মিডিয়াম পেসার থিসারা পেরেরা আবারও ব্যাট হাতে শ্রীলঙ্কার ত্রাতারূপে আবির্ভূত হলেন। বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের পর শেষ ওয়ানডেতেও হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিলেন তিনি। কলম্বোতে আজকের শেষ ম্যাচে তার সৌজন্যেই লড়াই করার মতো স্কোর পেল স্বাগতিকরা। ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৪০ বলে ৫২ রান করলেন পেরেরা। আর ৫০ ওভার শেষে লঙ্কানদের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ২৮০ রান। এর আগের দুই ম্যাচে তিনি যথাক্রমে ৫৫ এবং ৯ রান করেন।

সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে আজ টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নেয় বাংলাদেশ। আগের দুই ম্যাচের মতো শুরুতে সাফল্য এনে দিতে পারেননি অধিনায়ক মাশরাফি। আজ নতুন বলে ম্যাশের সঙ্গে বোলিং ওপেন করেও আগের মতোই নখদন্তহীন ছিলেন মুস্তাফিজ। এই সুযোগ ব্যাটিং তাণ্ডব শুরু করেন দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা এবং দানুশকা গুনাথিলাকা। ওপেনিং জুটিতে এসেছে ৭৬ রান। এরপরই বাংলাদেশকে কাঙ্ক্ষিত ব্রেক থ্রু এনে দেন তরুণ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। মিরাজের বলে ৩৮ বলে ৩ চার এবং ১ ছক্কায় ৩৪ রান করে মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের তালুবন্দি হলেন দানুশকা গুনাথিলাকা।

এরপর কম সময়ের ব্যবধানে অসাধারণ এক ডেলিভারিতে বিপজ্জনক উপুল থারাঙ্গাকে বোল্ড করে দেন তাসকিন আহমেদ। এর আগে কয়েকটি শর্ট বল করে ব্যাক ফুটে নিয়ে যান বাঁহাতি ব্যাটসম্যানকে। এরপর দারুণ গতির একটি ফুল লেংথ বলে উড়ে যায় থারাঙ্গার স্টাম্প। এরপর সাকিব আল হাসানের বলে তাসকিন থ্রো আর মুশফিকের দ্রুতগতির আঘাতে রান আউট হয়ে যান ৩৫ বলে ২১ রান করা চান্দিমাল। ২৫ রানের ব্যবধানে আবার একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটে। এবার বদলি ফিল্ডার শুভাগত হোমের থ্রোতে ঝড়ের গতিতে স্টাম্পে বল লাগান মুশফিক। ফিরে যান ১৬ বলে ১২ রান করা শ্রীবর্ধনা। এরপর ৬৬ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন কুশল মেন্ডিস। শেষ পর্যন্ত ৫৪ রানেই মুস্তাফিজের অফ কাটারে মুশফিকের হাতে ধরা পড়ে থামতে হয় তাকে।

এরপর নিয়মিতই উইকেট হারাতে থাকে স্বাগতিকরা। কিন্তু আবারও হাল ধরেন ৭ নম্বরে ব্যাট করতে নামা থিসারা পেরেরা। ইনিংসের শেষ ওভারের পঞ্চম বলে ৪০ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ১ ওভার বাউন্ডারিতে ৫২ রান করে মাশরাফির বলে তাসকিনের তালুবন্দী হন তিনি। ২৩০ রানে ৭ উইকেট হারানোর পর ৮ম উইকেটে জুটি হলো ৪৫ রানের। প্রথম উইকেটে ৭৬, তৃতীয় উইকেট ৪৯ রানের পর এটাই লঙ্কানদের তৃতীয় বড় জুটি। আর পেরেরা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট তুলে নিলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। অবশ্য রানও বেশি দিয়েছেন তিনি। ১০ ওভারে ৬৫ রান। ১০ ওভারে ৫৫ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন ফর্মে ফেরার চেষ্টায় থাকা কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। আর ১টি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী মিরাজ আর তাসকিন আহমেদ।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close