আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিকস্লাইড

সিরিয়ায় রাসায়নিক হামলা, ‘মানবতার অপমান’ বললেন ট্রাম্প

ওমেনআই ডেস্ক : সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে সরকারী বিমান বাহিনীর ভয়াবহ রাসায়নিক হামলায় কয়েক ডজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ায় এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এ হামলাকে ‘মানবতার অপমান’ উল্লেখ করে ট্রাম্প বলেন, ‘যখন আপনি নিষ্পাপ সন্তানদের হত্যা করবেন, নিষ্পাপ শিশুদের, ছোট্ট বাচ্চাদের… এটা অনেকগুলো সীমা ছাড়িয়ে যায়।’

এসময় সিরিয়ার মিত্র রাশিয়া সম্পর্কে কিছু বলেননি ট্রাম্প। যদিও রাশিয়া বলে আসছে যে, সিরিয়ায় ওই অঞ্চলে রাসায়নিক গ্যাস ছড়িয়েছে বিদ্রোহীদের হাত থেকে। তবে যুক্তরাষ্ট্র ও জাতিসংঘ বলছে, দামেস্ককে রক্ষা করতেই রাশিয়া এটা বলছে।

নিউইয়র্কে নিরাপত্তা পরিষদের উত্তপ্ত এক বিতর্কে জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত নিক্কি হ্যালে বলেছেন, সিরিয়া থেকে বিশ্বসম্প্রদায়ের মনোযোগ বদলে দিতে সময়ে সময়েই রাশিয়া এমন মিথ্যা আখ্যান ব্যবহার করে থাকে।

সম্প্রতি সিরিয়ায় উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ইদলিবে রাসায়নিক গ্যাস হামলায় ২০ শিশুসহ অন্তত ৭২ জন নিহত হওয়ায় এর দায় ওই অঞ্চলের বিদ্রোহীদের উপর চাপায় রাশিয়া। রাশিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়, সিরিয়ান বিমান হামলার স্থানে রাসায়নিক গ্যাস ছড়িয়ে পড়েছে বিদ্রোহীদের অস্ত্র থেকে।

এছাড়া রাশিয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে স্বীকার করা হয়েছে যে, ইদলিব প্রদেশের খান শেখোওয়ান শহরে সিরিয়ার সরকারী বাহিনীর দ্বারা বিমান হামলা চালানো হয়েছে। কিন্তু রাশিয়া আরো বলছে, সিরিয়ার চালানো বিমান হামলা ইরাকে ব্যবহারের জন্য ওই অঞ্চলের রাসায়নিক তৈরির কারখানায় আঘাত হেনেছে। আর সেখান থেকেই সম্ভবত ছড়িয়ে পড়েছে বিষাক্ত গ্যাস।

তবে সিরিয়ান বিমান থেকেই রাসায়নিক অস্ত্র ফেলা হয়েছে বলে যুক্তরাজ্যসহ অন্যান্যরা দাবী করে আসলেও, দামেস্কের পক্ষ থেকে তা নাকচ করে দেয়া হয়। বিবিসি।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close