আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্তর্জাতিকস্লাইড

উত্তেজনার মধ্যেই কোরীয় উপদ্বীপে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট

ওমেনআই ডেস্ক : উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই কোরীয় উপদ্বীপে পৌঁছেছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স। স্থানীয় সময় গতকাল রোববার রাতে পেন্স দুই কোরিয়াকে বিভক্তকারী অসামরিক এলাকার প্রবেশপথে পৌঁছেন। দক্ষিণ কোরিয়া সফরে এরপর তিনি দেশটির ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের সঙ্গেও দেখা করবেন। এছাড়া ১০ দিনে সফরে পেন্স এশিয়ার আরও তিনটি দেশ সফর করবেন। খবর বিবিসির।

খবরে বলা হয়, মাইক পেন্স রোববার সিউলে পৌঁছান। সেখান থেকে আজ সোমবার হেলিকপ্টারযোগে ডিএমজেডের কাছে অবস্থিত জাতিসংঘের একটি সামরিক ঘাঁটি ক্যাম্প বোনিফাসে যান তিনি। এরপর তার ডিএমজেড এলাকার ভেতরেই অবস্থিত পানমুনজম গ্রাম পরিদর্শনে যাওয়ার কথা রয়েছে, যেখানে কোরীয় যুদ্ধাবসানের চুক্তি সই হয়েছিল।
মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট পেন্সের বাবাও কোরীয় যুদ্ধে লড়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এবং দক্ষিণ কোরিয়ার সেনাবাহিনীর বন্ধুত্ব ঐতিহাসিক একটি বিষয় এবং দু’দেশের মানুষের মাঝে থাকা অটল বন্ধুত্বের প্রমাণ। উত্তর কোরিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্রর মধ্যে সম্প্রতি উত্তেজনা বেশ বেড়েছে। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় এবং শক্তি প্রদর্শন থেকে এখন যে কোনো সময় দু’দেশের মধ্যে যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। এমনকি নর্থ কোরিয়ার প্রতিবেশী এবং মিত্র চীনও এমন আশঙ্কার কথাই জানিয়েছে। নর্থ কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রসহ অন্যান্য অস্ত্র পরীক্ষা বন্ধের দাবি জানিয়ে সামরিক প্রস্তুতি হিসেবে কোরীয় সাগর ও উপদ্বীপ অঞ্চলে এখনো রয়েছে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ও এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ারের একটি বহর। অন্যদিকে ‘ডে অব সান’ উপলক্ষে নর্থ কোরিয়া ব্যাপক সমরাস্ত্র মহড়া করে এবং একটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষাও চালায়। যদিও গত শনিবার চালানো পরীক্ষাটি ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যমগুলো। এর জবাবে আজ সোমবার যুক্তরাষ্ট্র এবং দক্ষিণ কোরিয়া একটি যৌথ বিমানবাহিনী মহড়া করেছে বলেও দেশটির গণমাধ্যমগুলো থেকে জানা যায়। নর্থ কোরিয়ার বিরুদ্ধে যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রস্তুত থাকতেই এই মহড়া বলে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close