আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধস্লাইড

‘জঙ্গি আস্তানা’ ঘেরাও, গুলির শব্দ, ১৪৪ ধারা

ওমেনআই ডেস্ক : চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে গুলির শব্দ শোনা গেছে। সর্বসাধারণের নিরাপত্তায় সংশ্লিষ্ট এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আজ বুধবার ভোররাত থেকে উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নের ত্রিমোহনী শিবনগর এলাকার বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়।

ঘটনাস্থলে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট রয়েছে। আছে স্থানীয় থানার পুলিশ।
ভোররাতে বাড়িটি ঘিরে ফেলার পর বেলা ১১টা নাগাদ ঘটনাস্থল থেকে একাধিকবার গুলির শব্দ শোনার কথা জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন। শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল ইসলাম বলেন, বাড়ির ভেতর থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়েছে। জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানানো হচ্ছে।
ঘটনাস্থলে থাকা কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের এক কর্মকর্তা জানান, একতলা পাকা বাড়িটির মালিক সাইদুর রহমান। তাঁর বাড়িতে আবু (৩০) নামের এক ব্যক্তি থাকেন বলে জানা গেছে। তাঁর স্ত্রী-সন্তান আছে। কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের ওই কর্মকর্তা বলেন, বাড়িটি ঘিরে ফেলার পর পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়েছে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়েছে। বাড়িতে থাকা জঙ্গিদের আত্মসমর্পণ করতে হাতমাইকে বারবার আহ্বান জানানো হচ্ছে। বাড়ির আশপাশের লোকজনকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় নিয়ে আজ সকাল ছয়টা থেকে ত্রিমোহনী শিবনগর ও আশপাশের এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে উপজেলা প্রশাসন। পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট এলাকায় ১৪৪ ধারা বজায় থাকবে। ১৪৪ ধারা জারির বিষয়টি এলাকায় মাইকিং করে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে। জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে বাড়ি ঘিরে পুলিশের অভিযান চালানোর খবরে স্থানীয় লোকজনের মধ্যে কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে। তাঁরা এলাকায় জড়ো হয়ে পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করছেন। তবে কৌতূহলী লোকজনকে নিরাপদ দূরত্বে থাকতে বলছে পুলিশ।
স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তির ভাষ্য, গতকাল মঙ্গলবার রাতে ত্রিমোহনী শিবনগর এলাকা থেকে মাহফুজুর রহমান ও আবদুস সালাম নামের দুই ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। এরপরই পুলিশ ত্রিমোহনী শিবনগর এলাকার বাড়িটি ঘিরে ফেলে। স্থানীয় লোকজনের এই ভাষ্যের বিষয়ে পুলিশের কাছ থেকে কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close