আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধ

কন্যাভ্রূণ হত্যা চলছেই

ওমেন আই:
লিঙ্গ সমতা ও উন্নয়ন সংক্রান্ত বিশ্বব্যাংকের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, ভারতে গত দুই দশক ধরে বছরে প্রায় আড়াই লাখ কন্যাভ্রূণ হত্যা করা হয়৷ ভূমিষ্ঠ হবার আগে থেকেই লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার হতে হয় মেয়েদের৷

বিশ্বব্যাংকের সমীক্ষা রিপোর্ট বলছে, গত দুই দশকে ভারতে বছরে প্রায় আড়াই লাখ কন্যাভ্রূণ হত্যা করা হয়েছে
দেশের আইন বলছে, লিঙ্গ নির্ধারণ বা কন্যাভ্রূণ হত্যা করলে বা সদ্যোজাত কন্যাসন্তান পরিত্যাগ করলে কিংবা অবৈধ গর্ভপাত করা হলে কড়া সাজা হবে ডাক্তার বা রেডিওলজিস্টের৷ এ জন্য ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় শাস্তির সংস্থান আছে৷ গত দুই দশক ধরে ভারতে বছরে প্রায় আড়াই লাখ কন্যাভ্রূণ হত্যা করা হয়েছে৷

সমীক্ষা বলছে, ভারতে ৫৩ শতাংশ কন্যা সন্তান বাল্য বয়স থেকেই কোনো না কোনো যৌন নির্যাতনের শিকার ।
পশ্চিমবঙ্গের জনৈক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন, যে দেশে ব্যাপক হারে ভ্রূণের লিঙ্গ নির্ধারণ চলেছে৷ প্রি-ন্যাটাল ডায়গনস্টিক পদ্ধতিতে যদি দেখা যায় কন্যাভ্রূণ, তাহলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেই ভ্রূণহত্যা করা হয়৷ পরিণামে গোটা দেশে পুরুষের তুলনায় মেয়েদের অনুপাত কমে যাচ্ছে৷ প্রতি হাজার পুরুষে মেয়েদের গড় সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯১৪৷
ভারতে নারী অধিকার, নারী স্বাধীনতা এবং লিঙ্গ বৈষম্য নিয়ে কত আন্দোলন, প্রতিবাদ, মিছিল, আলোচনাচক্র লাগাতার চলেছে, কিন্তু তাতে ভেতরের ছবিটা পালটায়নি আদৌ৷
২০১৩ সালের মানব উন্নয়ন রিপোর্টে বলা হয়, কন্যা সন্তানরা শিশুকাল থেকেই অপুষ্টির শিকার হয় বেশি৷ ফলে তারা যখন মা হন, তখন তাদের অপুষ্টির ফল ভোগ করতে হয় সন্তানদের৷ ভারতে প্রায় ৪২.৫ শতাংশ শিশু অপুষ্টিতে ভোগে৷ মেয়েদের পুষ্টিহীনতা অনেক বেশি হয়, কারণ খাওয়াপরা ও যতœ পরিচর্যার দিক থেকে পুত্রসন্তানদের অগ্রাধিকার দেয়া হয়৷ ছোটবেলা থেকে মেয়েদের ভাবতে শেখানো হয়, ছেলেরা সংসারের সম্পদ৷ প্রায় ৫৪ শতাংশ শিশুর পরিপূর্ণ বিকাশ হয়না৷ ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায় অনেক আগেই৷
এখানেই শেষ নয়, কন্যা সন্তানদের ওপর দৈহিক নির্যাতন ও যৌন নিগ্রহের পরিধি ব্যাপক৷

ভারতে বিয়ের ব্যাপারে প্রতি ১০ জন মেয়ের মধ্যে পাঁচ জনের মত নেয়া হয়না
শিশু নিগ্রহ সংক্রান্ত জাতীয় সমীক্ষা বলছে ৫৩ শতাংশ কন্যা সন্তান কোনো না কোনো যৌন নিগ্রহের শিকার বাল্য বয়স থেকেই এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেটা হয় তাদের পরিচিতজন বা আত্মীয়দের দ্বারা৷ শিশু যখন নারী হয়ে ওঠে, তখনো এটা চলতে থাকে৷ জাতীয় অপরাধ ব্যুরোর পরিসংখ্যান অনুসারে ২০১২ সালে প্রায় ২৫ হাজার ধর্ষণের ঘটনা নথিভুক্ত করা হয়৷ এর ৯৯ শতাংশ ক্ষেত্রে ধর্ষণকারী তার পরিচিত৷
মেয়েদের পারিবারিক ও সামাজিক শোষণের তালিকা দীর্ঘ৷ বিয়ের ব্যাপারে প্রতি ১০ জন মেয়ের মধ্যে পাঁচ জনের মত নেয়া হয়না, প্রতি ১০ জনের মধ্যে ৮ জনকে ডাক্তার দেখাতে হলে ঘরের অনুমতি নিতে হয়৷ সাবালিকা হবার আগেই বিয়ে হয়ে যায় মেয়েদের৷ ২৫ বছরের বেশি বয়সের নারীদের মধ্যে ৪৮ শতাংশ স্বীকার করে তাদের বিয়ে হয় প্রাপ্তবয়স্ক হবার আগে৷ বিশেষ করে গরিব নারীরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সন্তানের জন্ম দিতে গিয়ে প্রাণ হারান৷ ভারতে বছরে দুই কোটি ৭০ লাখ শিশুর জন্মদান কালে অন্তত ৫৪ হাজার প্রসূতির মৃত্যু হয়৷

সূত্র:ডয়চে ভেলে

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close