আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
স্বাস্থ্য

তামাক সেবনে বছরে প্রাণঘাতী রোগে আক্রান্ত হয় ১২ লাখ

ওমেনআই ডেস্ক : তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবহার বর্তমান বিশ্বে অকাল মৃত্যু ও প্রতিরোধযোগ্য মৃত্যুর অন্যতম প্রধান কারণ। বাংলাদেশে ৪৩ দশমিক ৩ ভাগ অর্থাৎ ৪ কোটি ১৩ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ তামাক সেবন করেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যানুসারে তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারের কারণে বছরে প্রায় ১২ লাখ মানুষ হৃদরোগ, ফুসফুস ও মুখগহ্বরের ক্যান্সার, স্ট্রোক, ফুসফুসের দীর্ঘমেয়াদী রোগসহ প্রাণঘাতী ৮টি রোগে আক্রান্ত হয়। এর মধ্যে প্রতিবছর ৩ লাখ ৮২ হাজার মানুষ পঙ্গুত্ব বরণ করে, যার চিকিৎসা ব্যয় তামাক থেকে আহরিত রাজস্বের দ্বিগুণেরও বেশি।

গতকাল মঙ্গলবার ধানমন্ডিতে ঢাকা আহছানিয়া মিশন কর্তৃক নিজস্ব মিলনায়তনে আয়োজিত তামাক- উন্নয়নের অন্তরায় বিষয়ক এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এলজিআরডি ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মো. মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ এসব তথ্য তুলে ধরেন। প্রতিমন্ত্রী বলেন, তামাক বিরোধী আন্দোলনে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের জনপ্রতিনিধিদের সম্পৃক্ত করা হবে। সরকার তামাকজাত পণ্যে সঠিকভাবে কর আদায়ে উদ্যোগ নিয়েছে। তামাকের ভয়াবহতা বিবেচনায় নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আন্তর্জাতিক তামাক নিয়ন্ত্রণ চুক্তি ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোব্যাকো কন্ট্রোল (এফসিটিসি) প্রণয়ন করেছে, যা বাংলাদেশ স্বাক্ষর ও অনুস্বাক্ষর করেছে। সরকার ২০৪০ সালের মধ্যে পর্যায়ক্রমে তামাক নির্মূলের ঘোষণা দিয়েছে। এব্যাপারে ঢাকা আহছানিয়া মিশনসহ তামাক বিরোধী সংগঠনগুলোর সহায়ক ভূমিকা অপরিহার্য।

মিশনের সভাপতি কাজী রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শেখ সালাহউদ্দিন, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীর, ক্যাম্পেইন ফর টোব্যাকো ফ্রি কিডসের গ্রান্টস ম্যানেজার ডাঃ মাহফুজুর রহমান ভুঁইয়া প্রমুখ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা আহ্্ছানিয়া মিশনের স্বাস্থ্য খাত প্রধান ইকবাল মাসুদ। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষাবিদ, গবেষক ও স্কাউট সদস্যসহ প্রায় ১০০ জন প্রতিনিধি অংশ নেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close