আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
রাজনীতি

গুমকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে না সরকার: খালেদা

ওমেন আই:
বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘যারা গুম-খুনের সঙ্গে জড়িত সরকার তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। বরং সরকার গুম করে অন্যদের ওপর দোষ চাপাচ্ছে।

রবিবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে গুম-খুনের প্রতিবাদে বিএনপির গণঅনশনে তিনি একথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, বিএনপি সন্ত্রাস ও গুম-খুনের সঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত নয়, বরং আওয়ামী লীগই জঙ্গিদের সঙ্গে জড়িত।

তিনি সরকারের উদ্দেশে বলেন, দেশের অনেক সর্বনাশ করেছেন। দেশকে অনেক পিছনে নিয়ে গেছেন, তাই আর দেশকে পেছনে নেবার চেষ্টা করবেন না। সারাদেশে এখন শুধু কান্না আর কান্না, দেশের কোনো মানুষই নিরাপদ নয়। দেশ এখন চরম ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়া দেশের সব দল এবং জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। আর আওয়ামী লীগের সঙ্গে আছে খুনি এরশাদ। খুনিকে নিয়েই প্রধানমন্ত্রী চলছেন।

বিচার বিভাগের কোনো স্বাধীনতা নেই মন্তব্য করে খালেদা জিয়া বলেন, দেশের বিচার বিভাগ ভেঙে পড়েছে। দেশে আইনের কোনো শাসন নেই। একটি দেশে আইনের শাসন না থাকলে দেশ কখনো উন্নতির দিকে অগ্রসর হতে পারে না। দেশের এই পরিস্থিতির জন্য এ অবৈধ সরকারই দায়ী।

গণঅনশনের বাহিরে পুলিশের এ ওয়াটার কামান চলবে না। যে কোনো সময় এ কামান ঘুরে সরকারের বিরুদ্ধে চলতে পারে বলেও হুঁশিয়ারি জানান খালেদা।

নারায়ণগঞ্জের কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ ৭ জনের হত্যার কথা উল্লেখ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, সারাদেশ আজ হাহাকার করছে। চারদিকে মানুষের কান্না আর আহাজারি। কেউ কারো কথা শুনছে না। শুধু নারায়ণগঞ্জ নয়, আজ সারাদেশ মৃত্যুকূপে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, বিভিন্ন লীগ সারাদেশে জুলুম অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছে। গুম খুনের সঙ্গে এরা জড়িত। এ অবৈধ সরকার তাদের নিরস্ত্র করতে পারছে না।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের আমরা কখনোই সরকার বলবো না। এরা অবৈধ সরকার। এ অবৈধ সরকারের অধীন দেশব্যাপী অবৈধ কার্যক্রম চলছে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের নূর হোসেন একজন অপরাধী। তাকে কেন আইনের আওতায় আনা হচ্ছে না? সে এখন কোথায় জনগণ তা জানতে চায়।

তিনি আরও বলেন, খুনি, অবৈধ সরকার যতদিন ক্ষমতায় থাকবে ততদিন দেশে এ অবস্থা বিরাজ করবে। এভাবে চলতে দেয়া যাবে না। তাদের বিরুদ্ধে রাজপথে নামতে হবে। এ অবৈধ সরকারের বিরুদ্ধে আরও কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

ঢাকা মহানগর বিএনপি জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বরে রবিবার সকাল থেকে গুম, খুন ও নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে দিনব্যাপী অনশন কর্মসূচি পালন করে। পরে দলীয় চেয়ারপারসন অনশনরত নেতাকর্মীদের পানি পান করিয়ে তা ভাঙান।

ঢাকা মহানগর বিএনপি জাতীয় প্রেস ক্লাব চত্বরে রবিবার সকাল থেকে গুম, খুন ও নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে দিনব্যাপী অনশন কর্মসূচি পালন করে। পরে দলীয় চেয়ারপারসন অনশনরত নেতাকর্মীদের পানি পান করিয়ে তা ভাঙান।

ঢাকা মহানগর আহ্বায়ক সাদেক হোসেন খোকার সভাপতিত্বে গণ-অনশনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসূফ, সেলিমা রহমান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, শামসুজ্জামান দুদু, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, যুগ্ম মহাসচিব আমানউল্লাহ আমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিমউদ্দিন আলম, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, দলের প্রচার সম্পাদক জয়নুল আবদিন ফারুক, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন সুলতানা, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বজলুল করিম চৌধুরী আবেদ, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এস এম ওবায়দুল হক নাসির, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক শাহ নেসারুল হকসহ নেতাকর্মীরা।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close