আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধস্লাইড

গর্ভের শিশুকে দুই ভাগ : হাইকোর্টের তদন্ত কমিটি গঠন

ওমেনআই ডেস্ক : কুমিল্লায় সিজার করার সময় এক নারীর জরায়ুসহ নবজাতকের মাথা বিচ্ছিন্ন করার ঘটনা পুনঃতদন্তে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান ও জাতীয় অধ্যাপক ডা. শায়লা খাতুনকে নিয়ে দুই সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছেন হাইকোর্ট। এই কমিটিকে ঘটনা তদন্ত করে এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে।
আগামী বুধবার এই মামলার পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিনও অপারেশনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচ ডাক্তারকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। তবে কুমিল্লার সিভিল সার্জন ও কুমিল্লা মেডিকেলের পরিচালককে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।
আজ বুধবার বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।
আদালতে বিবাদীদের পক্ষে আইনজীবী আবদুল মতিন খসরু ওই ঘটনায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজের করা প্রতিবেদন আদালতে তুলে ধরেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত জানিয়েছে, যেহেতু এ প্রতিবেদনটি তিনজনের করা সেহেতু আমরা চাচ্ছি বাইরের কাউকে দিয়ে করা একটি তদন্ত প্রতিবেদন আসুক।
এর আগে আদালতের তলবে হাজির হন কুমিল্লার সিভিল সার্জন, কুমিল্লা মেডিকেলের পরিচালক ও অপারেশনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচ চিকিৎসক।
গত ২৫ মার্চ সিজার করার সময় এক নারীর জরায়ুসহ নবজাতকের মাথা বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় কুমিল্লার সিভিল সার্জন, কুমিল্লা মেডিকেলের পরিচালক ও অপারেশনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পাঁচ চিকিৎসককে তলব করেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করা হয়।
‘ডাক্তার দুই খণ্ড করলেন নবজাতককে’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে আদালত স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে এই আদেশ দেন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close