আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সারাদেশ

‘নরমাল জীবনে ফিরতে পারছি, এটাই বড় পাওয়া’

ওমেনআই ডেস্ক : নেপালের কাঠমাণ্ডুতে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্তের ঘটনার পর সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারাটাই অনেক বড় ব্যাপার বলে মন্তব্য করেছেন শাহরিন আহমেদ।
২৪ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ রোববার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) থেকে ছাড়পত্র পান শাহরিন আহমেদ। বেলা ১২টার দিকে বাড়ি ফেরার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।
শাহরিন আহমেদ বলেন, ‘আমি সুস্থ হয়ে নরমাল জীবনে ফিরতে পারছি, এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়া। আমার বেঁচে ফেরাটা অবভিয়াসলি একটা গিফট। কারণ আমার চোখের সামনেই আমি তিন জনকে স্ম্যাস হয়ে যেতে দেখেছি।’
সবার কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে শাহরিন বলেন, ‘আমরা যারা বেঁচে ফিরেছি, আমাদের সবার জন্য আপনারা দেশবাসী দোয়া করবেন, যেন আমরা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যেতে পারি। আমি ঢাকা মেডিকেলের সিনিয়র জুনিয়র ডাক্তার সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। এরা সবাই আমার জন্য অনেক করেছেন।’
পুরোপুরি সুস্থ হয়ে এসে সবাইকে আবারও ধন্যবাদ জানিয়ে যাবেন বলেও জানান শাহরিন।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন জানান, শাহরিন এখন ভালো আছে। তবে এখন তাকে ছাড়পত্র দেওয়া হলেও দুই সপ্তাহ পর আবার ফলোআপের জন্য তাকে হাসপাতালে আসতে হবে।
বিমান দুর্ঘটনায় শাহরিনের পা ভেঙে গেছে এবং শরীরের ৮ থেকে ১০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।
গত ১২ মার্চ নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার একটি বিমান ৬৭ যাত্রী ও চারজন ক্রু নিয়ে বিধ্বস্ত হয়। এতে ২৬ বাংলাদেশিসহ ৫১ জন নিহত হন। এই ঘটনায় আহত হন ১০ জন বাংলাদেশি। আহতদের মধ্যে শাহরিন আহমেদকে নেপাল থেকে দেশে ফিরিয়ে এনে ঢামেকের বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে ভর্তি করানো হয়।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close