আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

জোহরা তাজউদ্দিন মারা গেছেন

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদের স্ত্রী জোহরা তাজউদ্দিন আর নেই (ইন্নালিল্লাহে….রাজেউন)।

শুক্রবার সকালে রাজধানীর গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘ দিন ধরে বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

প্রবীণ এই আওয়ামী লীগ নেতার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর।

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়ার পর আহ্বায়ক হিসাবে আওয়ামী লীগের হাল ধরেন জোহরা। সে সময় দলকে সংগঠিত ও ঐক্যবদ্ধ করেন তিনি। পরে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা দেশে ফিরলে তার হাতে তুলে দেন দলের নেতৃত্ব।

তার মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

পরিবারের সদস্যরা জানান, জোহরা তাজউদ্দিন বেশ কিছুদিন ধরেই বাধ্যক্যজনিত বিভিন্ন জটিলতায় ভুগছিলেন। গত নভেম্বরে পড়ে গিয়ে তার কোমরের হাড় ভেঙে যায়। এরপর ইউনাইটেড হাসপাতালে কিছুদিন চিকিত্সার পর তাকে দিল্লির নিজন্তা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সেখানে অস্ত্রোপ্রচারের পর গত ১৭ ডিসেম্বর তাকে আবারো ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে নেয়া হয়।

হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মাসরুফা হোসাইন জানান, গত বৃহস্পতিবার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে জোহরা তাজউদ্দিনকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়।

সকালে জোহরা তাজউদ্দিনের মৃত্যুর খবরে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে আসে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে শেষবারের মতো দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান।

হাসপাতালে জোহরা তাজউদ্দিনের স্মৃতি স্মরণ করে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, “তার মৃত্যুতে কেবল দলের নয় পুরো দেশের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। আর আমি একজন আপনজনকে হারালাম।”

আওয়ামী লীগ নেতা তোফায়েল আহমেদ ও সাজেদা চৌধুরী এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন জানান, শুক্রবার বিকালে আসরের নামাজের পর গুলশানের আজাদ মসজিদে জোহরা তাজউদ্দিনের প্রথম জানাজা হবে। তারপর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে তার মরদেহ রাখা হবে সবার শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য।

পরিবারের সদস্যরা জানান, জোহরা তাজউদ্দিনের ছেলে সাবেক প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমদ সোহেল তাজ যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। তিনি ফিরলে রোববার বনানী কবরস্থানে স্বামী তাজউদ্দিন আহমদের কবরেই শায়িত হবেন  জোহরা তাজউদ্দিন।

১৯৫৯ সালে তাজউদ্দিন আহমদের সঙ্গে বিয়ে হয় জোহরার।

তাদের চার সন্তানের মধ্যে শারমিন আহমদ সবার বড়। মেজো সিমিন হোসেন রিমি গাজীপুর-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য। ছোট মেয়ের নাম মাহজাবিন আহমদ মিমি। আর একমাত্র ছেলে তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ সাবেক মহাজোট সরকারের সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close