আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
লাইফ স্টাইল

আমলকির পুষ্টিগুণ

ওমেন আই:
খেতে টক হলেও অনেক পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল আমলকি। এটি এক প্রকার ভেষজ ফলও বটে। আমলকিতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি। এমনকি পেয়ারা ও কাগজি লেবুর চেয়েও আমলকিতে অনেক বেশি ভিটামিন সি রয়েছে বলে জানিয়েছেন পুষ্টিবিদরা।

এছাড়া কমলা, আপেল ও কলার চেয়েও কম পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ নয় এ ফলটি। আর এ পুষ্টিগুণের কারণেই এটি বিভিন্ন রোগের হাত থেকে রক্ষা করে। তাই প্রতিদিন একটি করে আমলকি খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন পুষ্টিবিদরা।

রোগ-ব্যাধি থেকে আমলকির উপকার:

শরীরে ভিটামিন সি-এর ঘাটতি মেটাতে আমলকির জুড়ি নেই। ভিটামিন সি-এর অভাবে যেসব রোগ হয়, যেমন: স্কার্ভি, মেয়েদের লিউকোরিয়া, অর্শ প্রভৃতি ক্ষেত্রে আমলকি খেলে ভালো উপকার পাওয়া যায়।

আমলকি খেলে মুখে রুচি বাড়ে। এমনকি পেটের পীড়া, সর্দি, কাশি ও রক্তহীনতা দূর করতেও এর কোনো বিকল্প নেই।

সামান্য মধু মিশিয়ে আমলকি খেলে পিত্ত সংক্রান্ত যেকোনো রোগে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

বারবার বমি হলে এক কাপ পানিতে শুকনো আমলকি ভিজিয়ে ঘণ্টা দুই রেখে দিন। এরপর সেই পানিতে একটু চন্দন ও চিনি মিশিয়ে খান। তাহলে দেখবেন ম্যাজিকের মতো বমি বন্ধ হয়ে গেছে।

নিয়মিত কয়েক টুকরো করে আমলকি খেলে চোখের দৃষ্টিশক্তি ভালো থাকে।

হার্টের রোগীদের আমলকি খাওয়া অনেক ভালো। এত করে ধরফরানি ভাব অনেকটাই কমে যাবে।

আমলকির তেল মাথা ঠাণ্ডা রাখে। কাঁচা বা শুকনো আমলকি বেটে একটু মাখন মিশিয়ে মাথায় লাগালে খুব তাড়াতাড়ি ঘুম আসে। এছাড়া কাঁচা আমলকি বেটে রস প্রতিদিন চুলে লাগিয়ে ২-৩ ঘণ্টা রাখলে একমাসে চুলের গোড়া শক্ত হবে। এমনকি চুল ওঠা এবং তাড়াতাড়ি চুল পাকাও বন্ধ হবে।

আমলকি শুধু ক্ষিধে বাড়ায় না, বরং টাটকা আমলকি তৃষ্ণা মেটাতেও সাহায্য করে। আবার ঘন ঘন প্রস্রাব হওয়া বন্ধ করার পাশাপাশি পেট পরিষ্কার করতেও এর কোনো বিকল্প নেই।

পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ এই ফলটি তাই প্রতিদিন খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। ভাল থাকুন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close