আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমা চ্যালেঞ্জ করে রিট

HCওমেন আই: রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমার বিষয়ে সংবিধানের ৪৯ অনুচ্ছেদকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

একই সঙ্গে সংবিধানে রাষ্ট্রপতির ক্ষমার বিধানকে কেন বৈষম্যমূলক এবং মানবাধিকার লঙ্ঘন ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারিরও আবেদন করা হয়েছে।

রোববার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় হিউম্যান রাইটস ওয়াচ অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ-এর পক্ষে রিটটি দায়ের করেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোর্শেদ।

রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সচিব, আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ অ্যান্ড ড্রাফটিং বিভাগের সচিব এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

রিট দায়ের শেষে আইনজীবী মনজিল মোর্শেদ বলেন, ‘সংবিধানে ৪৯ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমার বিধান রয়েছে। তবে সাংবিধানিকভাবে রাষ্ট্রপতির এ অধিকার বিচার বিভাগের ওপর হস্তক্ষেপের সামিল। এছাড়াও এ বিধানটি মৌলিক অধিকারের পরিপন্থি।’

উল্লেখ্য, সংবিধানের ২৬(১) অনুচ্ছেদে উল্লেখ রয়েছে, ‘এই ভাগের বিধানাবলীর সহিত অসমঞ্জস সকল প্রচলিত আইন যতখানি অসামঞ্জস্যপূর্ণ, এই সংবিধান-প্রবর্তন হইতে সেই সকল আইনের ততখানি বাতিল হইয়া যাইবে’।

এছাড়াও ২৬(২) অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্র এই ভাগের কোনো বিধানের সহিত অসমঞ্জস কোনো আইন প্রণয়ন করিবেন না এবং অনুরূপ কোনো আইন প্রণীত হইলে তাহা এই ভাগের কোনো বিধানের সহিত যতখানি অসামঞ্জস্যপূর্ণ, ততখানি বাতিল হইয়া যাইবে।’

সুতরাং রাষ্ট্রপতির এ বিধান মৌলিক অধিকারের পরিপন্থি হওয়ায় তা বাতিল হয়ে যাওয়ার কথা বলে উল্লেখ করেন মনজিল মোর্শেদ।

ঢাকা ১ জুন (ওমেন আই) // এলএইচ//

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close