আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

মাস্তানি করে নমিনেশন পাবেন না: ওবায়দুল কাদের

ওমেনআই ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘যারা জনগণের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেছেন তাদেরকে বলছি, সংশোধন হয়ে যান। সংশোধন না হলে মনোনয়ন পেতে কষ্ট হবে। আমলনামা জমা, এসিআর জমা, সব আজকে শেখ হাসিনার হাতে। কাজেই মাস্তানি করে, জনগণকে অখুশি করে কেউ নমিনেশন পাবেন না।’ শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে জয়পুরহাট রেলস্টেশনে আয়োজিত এক পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় নমিনেশন পেতে আওয়ামী লীগ নেতাদের জনগনের কাছে গ্রহণযোগ্য হওয়ার পরামর্শ দেন ওবায়দুল কাদের।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড জনগণের মাঝে তুলে ধরতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে নিয়ে ঢাকা থেকে আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনে তিনি উত্তরবঙ্গে সাংগঠনিক সফরে আসেন।

জয়পুরহাটে পৌঁছে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘জয়পুরহাটের মানুষ ভালো। আমাদের ছোট-খাটো ভুল ত্রুটি হতে পারে। কখনও কখনও কেউ আপনাদের সঙ্গে আচরণ খারাপ করতে পারেন। আমি সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আপনাদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।’

জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে পথসভায় সভাপতিত্ব করেন, জেলা কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সামছুল আলম দুদু।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে মুক্তি পেতে হলে আদালতের মাধ্যমেই পেতে হবে। ১০ বছর গত হলো। বিএনপি কোনও আন্দোলন করতে পারেনি। এখনও আন্দোলনের ভয় দেখায়। মরা গাঙে কখনও জোয়ার আসে না। আগামী দুই মাসে জোয়ার আসারও কোনও সম্ভাবনা নেই। এখনও তারা চায় নাশকতা ও অরাজকতা সৃষ্টি করতে।’

আন্দোলনের নামে বিএনপি নাশকতা বা অরাজকতা করলে তা প্রতিরোধে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। উন্নয়নের ধারা বজায় রাখার স্বার্থে ভেদাভেদ ভুলে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে কাজ করারও নির্দেশনা দেন ওবায়দুল কাদের।

এসময় জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও আ ওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রী শহরে একটি ওভারব্রিজ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এর আগে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর রেলস্টেশনে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে অনুরূপ পথসভায় ওবায়দুল কাদের বক্তব্য রাখেন।

পথসভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিএম মোজাম্মেল হক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ হোসেন, ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, আনোয়ার হোসেন, জয়পুরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট, জয়পুরহাট জেলা আ’লীগের সহসভাপতি অ্যাডভোকেট মোমিন আহমেদ চৌধুরী জিপি, সাধারণ সম্পাদক এসএম সোলায়মান আলী, অ্যাডভোকেট নৃপেন্দ্রনাথ মণ্ডল পিপি, গোলাম হক্কানি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, পৌর মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান, জহুরুল ইসলাম, তৌফিদুল ইসলাম বুলবুল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্রভাষক মাসুদ রেজা, সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র/আপলোডেড বাই: banglatribune.com/অরণ্য সৌরভ

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close