আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

অক্টোবরে বসবে সংসদের শেষ অধিবেশন

ওমেনআই ডেস্ক: দশম জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশন শুরু হয়েছে। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে রোববার বিকেল পাঁচটায় বৈঠক শুরু হয়। কার্য উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, অধিবেশন চলবে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এছাড়া বর্তমান সরকারের অধীনে আগামী মাসে (অক্টোবর) আরেকটি অধিবেশন বসবে। সেটিই হবে সংসদের শেষ অধিবেশন।

অধিবেশন শুরুর দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ অধিকাংশ মন্ত্রী-এমপি উপস্থিত ছিলেন। অধিবেশন শুরুর আগে কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠক হয়। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত ছিলেন।

কার্য উপদেষ্টা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রতিদিন বিকেল ৫টায় অধিবেশন শুরু হবে। বৈঠক সূত্র জানায়, অক্টোবরে আরেকটি অধিবেশন বসবে। তবে কত তারিখে বসবে এই বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। এর আগে সংসদের ২১তম অধিবেশন ১২ জুলাই শেষ হয়। ওই অধিবেশনের কার্যদিবস ছিল ২৫টি। সংবিধান অনুযায়ী একটি অধিবেশন শেষ হওয়ার পর ৬০ কার্যদিবসের মধ্যে আরেকটি অধিবেশন আহ্বানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২১টি বিল সংসদে পাসের অপেক্ষায় রয়েছে। এ ছাড়া একইদিনে মন্ত্রিসভায় অনুমোদন পাওয়া বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইনটি এরই মধ্যে সংসদে জমা পড়েছে। শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু আসন্ন অধিবেশনে এই আইনটি পাস হওয়ার কথা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন।

এ ছাড়া ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণের বিধান যুক্ত করে নির্বাচন কমিশন গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধনী প্রস্তাব অনুমোদন করে তা ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আইন মন্ত্রণালয় থেকে ভেটিংয়ের পর চলতি সপ্তাহেই মন্ত্রিসভা হয়ে আরপিও সংশোধনী প্রস্তাব সংসদে যাবে।

সংসদ সচিবালয়ের আইন শাখা থেকে জানা গেছে, চলতি অধিবেশনে সংসদে বিবেচনার (পাস) জন্য তিনটি বিল এরই মধ্যে প্রস্তুত রয়েছে। বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন বিল, বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল অন্যতম। এ ছাড়া সংসদীয় কমিটিতে পরীক্ষাধীন রয়েছে ৯টি বিল। এগুলো হলো-  ডিজিটাল নিরাপত্তা বিল, জাতীয় পরিকল্পনা উন্নয়ন একাডেমি বিল, বস্ত্র বিল, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট বিল, বাংলাদেশ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড (সংশোধন) বিল, যৌতুক নিরোধ বিল, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বিল, সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বিল ও সার (ব্যবস্থাপনা) (সংশোধন) বিল।

এর পাশাপাশি সংসদে উত্থাপনের জন্য সংসদ সচিবালয়ে যে বিলগুলো জমা হয়েছে তা হলো— ওজন ও পরিমাপ মানদণ্ড বিল, বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইন্সটিটিউট বিল, মানসিক স্বাস্থ্য বিল, পণ্য উৎপাদনশীল রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্পপ্রতিষ্ঠান শ্রমিক (চাকরি শর্তাবলি) বিল, কৃষি বিপণন বিল, বাংলাদেশ?মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট বিল, জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন বিল, সড়ক পরিবহন বিল, হাউজিং অ্যান্ড রিচার্স ইন্সটিটিউট বিল এবং বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন।

অধিবেশনের বিষয়ে জানতে চাইলে চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ সাংবাদিকদের বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী এ অধিবেশনই শেষ অধিবেশন হওয়ার কথা। কারণ, এ অধিবেশন সংক্ষেপ করার পরও নতুন আরেকটি অধিবেশনের সুযোগ কম। এ জন্য এ অধিবেশনটি কিছুদিনের জন্য মুলতবি করে অক্টোবরের শেষ ভাগ পর্যন্ত চলার সম্ভাবনাই বেশি। তবে, এটাই শেষ তা বলা সম্ভব নয়। কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে এটার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে। তখন বিষয়টি জানা যাবে।’ আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এ অধিবেশনকে শেষ মনে করেই আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি। এ জন্য কিছু বিল পাসসহ যেসব বিষয় পেন্ডিং রয়েছে আমরা এ সময়ে তা শেষ করতে চাই।’

এদিকে সংসদের এ অধিবেশনের জন্য ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপির) পক্ষ থেকে নগরবাসীর জন্য বিশেষ কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সংসদ অধিবেশন চলাকালীন জাতীয় সংসদের আশপাশের এলাকায় যে কোনো ধরনের সভা-সমাবেশ, মিছিল, শোভাযাত্রা ও বিক্ষোভ প্রদর্শনের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এ ছাড়া সব ধরনের অস্ত্র, বিস্ফোরক দ্রব্য, অন্যান্য ক্ষতিকারক ও দূষণীয় দ্রব্য বহনেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

মানবকণ্ঠ/অরণ্য সৌরভ

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close