আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
সাহিত্য

কবিতা : মানুষ যেদিন প্রথম বিষের প্রয়োগ শিখেছিলো

মানুষ যেদিন প্রথম বিষের প্রয়োগ শিখেছিলো

দয়াময় পোদ্দার 

আমাদের ছোট ছোট দুঃখগুলো খালুইতে করে যে ঘাটে ধুতে যাও
সেইঘাটে একজন কবি এসে নৌকো থেকে নামেন, ভেজাবালিতে
পা’রাখেন। সোনালি ডানার যতচিল উড়ে এসে ঘরের চালে
বারান্দার সোফায়, জানালায়, লেখার টেবিলে বসে,
সোনালি ডানার চিলে ঘর ভরে যায়।

কবি তাদের ডানায়, মাথায় সুখ বুলিয়ে দেন। হলুদ ঠোঁটে রাখেন
নীল-চুম্বন; তার অনেক আগে কবির বুক ছুঁয়ে চলে গেছে – ট্রাম,
বালিগঞ্জে। তোমাকে বলা হয়নি – সেই অবেলার কথা,
রাক্ষসের দাঁতের থেকে রক্ত ছিটে লেগেছে আকাশে। তবু
ভোর হলো,ম্লান সূর্যের হাওয়ায় ভাষ্যপাঠ – ঘাতক শব্দে।
আমাদের বিশাল- হৃদয় শিরিষ গাছটার থেকে আচমকা হৃৎপিণ্ড
খসে পড়ার ব্যথায় মাটিতে কম্পন, আর
সূর্য  যতদূরে সরে গেছে – হৃৎপিণ্ডের সংখ্যাধিক্য শুধু; তুমি কাঁদবে বলে
দেখাইনি ভাঙা কলম, লুকিয়ে রাখতে গিয়ে দুইহাতে মেখেছি খুন।
মানুষ যেদিন প্রথম ফিউরিডোনের প্রয়োগ শিখেছিলো,
তারপরে তারা আর কোনদিন হাসেনি, এখন পাঠশালায় যায়
হাসি শিখতে, আর রুমালে মুছে রেখেছে হাতের রক্ত, অথবা
সোনালি ডানা চিলের নিথর চোখ।

সেদিন কবি অনেক সময় নদীঘাটে বসে কেঁদেছিলেন,
কেঁদে কেঁদে ফিরে গেছে – সোনালি ডানার চিল,
আজও আমার চোখে লেগে রয়েছে -সেই কান্নার অশ্রু!

আপলোডেড বাই: অরণ্য সৌরভ

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

Close
Back to top button
Close
Close