আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

বেঁচে নেই জেনেও স্বজনদের অপেক্ষা

07_Launch-sinks_Padma_040814_0024ওমেন আই:কারো সন্তান, কারো বাবা অথবা মা। কারো প্রিয়তমা স্ত্রী কিংবা স্বামী। কারোবা পুরো পরিবারই ডুবে গেছে পদ্মা নদীর অতলে। শত প্রাণ কেড়ে নিয়েছে পিনাক-৬ নামের লঞ্চটি। শোকের দহনে প্রিয়জনের লাশের জন্যই এখন স্বজনদের অপেক্ষা।

বেদনা বিধুর পরিবেশে ভারী এখন মাওয়া ঘাট। বুক চাপড়িয়ে কাঁদছেন স্বজনেরা। ঈদ শেষে ঢাকায় ফেরা কাল হলো লঞ্চটিতে থাকা যাত্রীদের। সান্ত্বনা দেওয়ার ভাষা যেনো তাদের কারো নেই। প্রাণহীন প্রিয়মুখটি তারা শেষবারের মতো একবার দেখতে পারবেন কিনা তাও জানেন না স্বজনেরা।

মঙ্গলবার এ প্রতিবেদন লেখাকালীন উদ্ধার অভিযানে কোনো অগ্রগতি নেই। জাহাজের অবস্থানই চিহ্নিত করতে পারেনি উদ্ধার অভিযানে নিয়োজিতরা।

বেঁচে নেই জেনেও মাওয়া ঘাটে শেষবারের মতো প্রাণহীন দেহটির জন্য হাজারো স্বজন অপেক্ষা করছে। নদীর দিকে উদ্বেল চোখে তাকিয়ে- কখন দেখা যাবে লঞ্চটি। কিন্তু উত্তাল নদীতে খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না পিনাক-৬ এর।

এদিকে উদ্ধার অভিযানের ২৪ ঘণ্টা পার হলেও লঞ্চের অবস্থান চিহ্নিত করতে না পারায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন লঞ্চ ডুবিতে নিখোঁজ হওয়া যাত্রীদের স্বজনরা। তাদের অভিযোগ, উদ্ধার অভিযানে ধীরগতি চলছে।

ফরিদপুর জেলার আটরশির ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার রেখা বেগমের ভাই, ভাবী, ভাতিজাসহ মোট ৭ আত্মীয় নিখোঁজ।

নৌমন্ত্রী শাজাহান খান মাওয়া ঘাটে এসে সাংবাদিকদের বলেন, উদ্ধার অভিযানে নিয়োজিতরা আন্তরিকভাবে কাজ করছেন। এখানে কারো কোনো ঘাটতি নেই।

সোমবার বেলা ১১টায় মাওয়া ঘাটের একশ’ গজ দূরে পদ্মায় প্রায় আড়াইশ’ যাত্রী নিয়ে তলিয়ে যায় পিনাক-৬ লঞ্চটি। সাঁতরে তীরে উঠে আসেন ৪০-৪৫ জন যাত্রী। এদের মধ্যে সোমবার ঘটনাস্থল থেকে হাসি ও হীরা নামে দুই নারীর লাশ উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার চাঁদপুরে পাওয়া যায় আরো ৪ লাশ। তবে এ লঞ্চডুবির ঘটনায় নিহত কি না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এ পর্যন্ত ১২৯ জন নিখোঁজের তালিকা পাওয়া গেছে।

ঢাকা, আগস্ট (ওমেন আই)//এলএইচ/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close