আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
নারী সংগঠন

প্রধানমন্ত্রীর কাছে ‘মহিলা পরিষদের’ পত্র হস্তান্তর

mhilaওমেনঅাই: তিনটি দাবিতে নেয়া নারীদের স্বাক্ষর সম্বলিত একটি পত্র প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।

এ পত্রে ৭৮ হাজার ৫০১ জন নারীর স্বাক্ষর আছে।

দাবি তিনটি হলো- জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী-আসনে সরাসরি নির্বাচন, আসন সংখ্যা এক-তৃতীয়াংশ বৃদ্ধি এবং আন্তর্জাতিক সিডও সনদের ২ এবং ১৬-১(গ) ধারা থেকে সংরক্ষণ প্রত্যাহার করা।

সম্প্রতি মহিলা পরিষদের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে প্রোগ্রাম ডিরেক্টর অ্যাডভোকেসি জনা গোস্বামী এবং প্রোগ্রাম কো অর্ডিনেটর খোদেজা আক্তার নাজমা প্রধানমন্ত্রীর পিএস-২ ড. নমিতা হালদারের কাছে পত্রটি হস্তান্তর করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জানানো হয়, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে সরাসরি নির্বাচন এবং আসন সংখ্যা এক- তৃতীয়াংশ বৃদ্ধি, এই ব্যবস্থা কমপক্ষে ২ টার্মের জন্য বলবৎ রাখা এবং এজন্য নির্বাচনী এলাকা পুনঃনির্ধারণ করার দাবিতে এবং আন্তর্জাতিক সিডও সনদের ২ এবং ১৬-১(গ) ধারা থেকে সংরক্ষণ প্রত্যাহার করার জন্য ৭৮ হাজার ৫০১ সংখ্যক নারীর স্বাক্ষর সংগ্রহ করে তা প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রেরণ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে সরাসরি নির্বাচন বিষয়ে সরকার এখন পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। সরকারের দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকা সত্ত্বেও সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীতে এ বিষয়ে কোনো বিল উত্থাপন করা হয়নি।

বিজ্ঞপ্তি জানানো হয়, বাংলাদেশের সংবিধানের সমঅধিকার ও সমতার নীতি বাস্তবায়নে এবং বৈশ্বিক পর্যায়ের অঙ্গীকার পূরণে সিডও সনদের ২ এবং ১৬.১ (গ) ধারা থেকে সংরক্ষণ প্রত্যাহারের বিষয়টি অত্যন্ত জরুরি। সিডও সনদের ২ নং ধারাকে বলা হয় সনদের প্রাণ। এই ধারা বাদ দিয়ে নারীর প্রতি অবিচার করা হয়েছে।

মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে আগামী সংসদ অধিবেশেনে এই বিষয়ে বিল উত্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় সব রকম উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো হয়।

ঢাকা,১৮ অাগস্ট (ওমেনআই)/এলএইচ/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close