আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
রাজনীতি

‘সিপিএম-এর সঙ্গে জোট করতে আপত্তি নেই’

momota-wmnওমেনঅাই:পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে তৃণমূল প্রধান ও পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রয়োজনে প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিএমের সঙ্গে রাজনৈতিক জোট গঠনে আপত্তি নেই বলে জানিয়েছেন। শুক্রবার রাতে কলকাতার সংবাদভিত্তিক টেলিভিশন ২৪ঘণ্টা-তে দেওয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, রাজনীতিতে কেউ অচ্ছুৎ নয়। সাম্প্রদায়িক শক্তির মোকাবিলায় ও পরিস্থিতির প্রয়োজনে সিপিএমের তরফে কোনো প্রস্তাব এলে তিনি আলোচনায় রাজি।

গত সপ্তাহে ভারতের বিহার রাজ্যে ১০টি বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনে দুই দশকেরও বেশি সময়ের বৈরিতা ভুলে একজোট হয়েছিলেন নীতীশ কুমার ও লালুপ্রসাদ যাদব। সেই মহাজোটে সামিল হয়েছিল কংগ্রেসও। শেষ পর্যন্ত ৬টি আসনে জিতে মহাজোট বিজেপিকে আটকে দিতে পেরেছে। এই ‘বিহার মডেল’ নিয়েই সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল। নীতীশ-লালু এবং কংগ্রেসকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের এখানেও তেমন পরিস্থিতি এলে ভাবব। আমরা তো আগে এসইউসি-র সঙ্গে চলেছি। আরও দু-একটা ছোট দলও ছিল আমাদের সঙ্গে।’

তৃণমূল নেত্রী আরও বলেন, ‘কেউ এগিয়ে এলে কথা বলা যেতেই পারে। গণতন্ত্রে কথা বলা সব সময়ই ভাল। কথা বন্ধ করতে নেই। কেউ অচ্ছুৎ নয়। কোন অপশন ভাল, কোন অপশন শান্তির ও উন্নয়নের, সেটা দেখতে হবে।’

এদিকে সিপিএম পলিটব্যুরো সদস্য সূর্যকান্ত মিশ্র মমতার এই সন্ধি বার্তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, সিপিএম এত সহজে তৃণমূল নেত্রীকে বন্ধু ভাবতে যাচ্ছে না। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ডেকে এনেছিলেন উনিই। আর এখন রাজ্যজুড়ে যে সন্ত্রাস চলছে, বিরোধীদের উপরে যেভাবে আক্রমণ হচ্ছে- এ ভাবে গণতন্ত্র বিপন্ন হলে কখনই ধর্মনিরপেক্ষতাকে রক্ষা করা যায় না।’

এদিকে তৃণমূল নেত্রীর বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি রাহুল সিংহ বলেছেন, ‘বাংলার মানুষ এক দিন সিপিএম-তৃণমূল সমঝোতা দেখবেন! তারাই বিচার করবেন। সিপিএম-ও তাদের কিছু শর্ত মেনে নিলে তৃণমূলের সঙ্গে যেতে আপত্তি করবে না।’

ঢাকা, ৩০ অাগস্ট (ওমেনঅাই)/এলএইচ/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close