আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

পর্যবেক্ষক পাঠাবে না যুক্তরাষ্ট্রও

ওমেন আই:
দেশের মানুষের কাছে ‘গ্রহণযোগ্য’ হয় এমন একটি নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ তৈরির জন্য প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো ‘সমঝোতায় আসতে না পারায়’ ইউরোপীয় ইউনিয়নের মতো যুক্তরাষ্ট্রও বাংলাদেশে পর্যবেক্ষক না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র জেন সাকি রোববার এক বিবৃতিতে এ কথা জানান।

তফসিল অনুযায়ী ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন হওয়ার কথা। তবে প্রধান বিরোধী দল বিএনপির বর্জনের কারণে একক প্রার্থী থাকায় ১৫৪টি আসনের ফল আগেই নির্ধারিত হয়ে গেছে। সে অনুযায়ী নির্ধারিত তারিখে ভোট হবে ১৪৬টি আসনে।

এদিকে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে আসা বিএনপি ও শরিকরা তফসিল ঘোষণার পর থেকেই ছুটির দিনগুলো ছাড়া প্রতিদিন সারা দেশে অবরোধ চালিয়ে আসছে। সহিংসতায় এর মধ্যেই আশি জনেরও বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে, যাদের বেশিরভাগই আগুনে পুড়ে বা বোমা বিস্ফোরণে মারা গেছেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুনের বিশেষ দূত অস্কার ফার্নান্দেজ-তারানকো চলতি মাসের শুরুতে ঢাকা সফর করে দুই প্রধান দলকে সংলাপে বসিয়ে তা চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে ঢাকা ছাড়েন।

কিন্তু দুই দলের নেতাদের মধ্যে পরে দুদফায় বৈঠক হলেও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে কোনো সমঝোতা হয়নি।

এই পরিস্থিতিতে গত শুক্রবার ইউরোপীয় ইউনিয়নও (ইইউ) জানিয়ে দেয়, তারা এবার বাংলাদেশে পর্যবেক্ষক পাঠাচ্ছে না।

ইইউর পররাষ্ট্রনীতি ও নিরাপত্তা বিষয়ক হাই রিপ্রেজেনটেটিভ ক্যাথেরিন অ্যাশটন এক বিবৃতিতে বলেন, “ইইউ এই নির্বাচন পর্যবেক্ষণে প্রস্তুত। কিন্তু সেজন্য একটি স্বচ্ছ, অংশগ্রহণমূলক ও বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানের মতো পরিবেশ থাকতে হবে।”

বিবৃতিতে বলা হয়, জাতিসংঘসহ বিভিন্ন পক্ষের নানামুখী চেষ্টার পরও বাংলাদেশের রাজনৈতিক শক্তিগুলো অংশগ্রহণমূলক একটি নির্বাচনের শর্ত পূরণে ব্যর্থ হয়েছে।

সহিংসতা থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি বাংলাদেশের জনগণের গণতান্ত্রিক মতপ্রকাশের অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে রাজনীতিবিদদের প্রতি অনুরোধ জানান ক্যাথেরিন অ্যাশটন।

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close