আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
স্বাস্থ্য

শরীর ব্যথাকে আর নয় অবহেলা

dont-avoid-painওমেনআই:আমাদের শরীরের নানান স্থানে মাঝে মাঝে টুকটাক ব্যথা হয়। কখনো কম কখনো বেশি এসব ব্যথাকে অধিকাংশ সময়েই আমরা কোনো গুরুত্ব দেই না। অথচ এসব ব্যথাই হতে পারে অনেক বড় কোনো সমস্যার প্রাথমিক লক্ষণ! ডেকে আনতে পারে মৃত্যু পর্যন্ত! তাই এসব ব্যাথাকে সব সময়ে অবহেলা করা কিংবা ঘরোয়া চিকিৎসা করা একেবারেই উচিত নয়। তাই জেনে নেয়া উচিত কোন কোন ধরণের ব্যথাকে হেলাফেলা না করে চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত সে সম্পর্কে। জেনে নিন কিছু শারীরিক ব্যথা সম্পর্কে যেগুলো অবহেলা করা একেবারেই উচিত নয়।

যে দাঁত ব্যথায় ঘুম ভেঙে যায়
আপনার যদি দাঁত ব্যাথার মাত্রা এতোটাই বৃদ্ধি পায় যে মাঝ রাতে গভীর ঘুমও দাঁত ব্যথার কারণে ভেঙে যায়, তাহলে আপনার দ্রুত দাঁতের ডাক্তার দেখানো উচিত। দাঁতের ছিদ্রের মাধ্যমে ইনফেকশন মাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে যাওয়ার কারণে এই ধরণের দাঁত ব্যথা হতে পারে আপনার।

হঠাৎ মাথায় অসহ্য ব্যথা
হঠাৎ করে যদি মাথায় অস্বাভাবিক ব্যথা ওঠে এবং মাথার ব্যথায় আপনি চোখে ঘোলা দেখতে আরম্ভ করেন তাহলে বিষয়টিকে অবহেলা করা একেবারেই উচিত হবে না। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, কোনো আঘাত, টিউমার ইত্যাদি কারণে এধরণের অস্বাভাবিক ব্যথা হতে পারে আপনার মাথায়। তাই এই পরিস্থিতিতে জরুরীভিত্তিতে ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়ে যান।

তল পেটের ডান দিকের ব্যথা
এধরণের ব্যথা যদি আপনার ২৪ ঘন্টার বেশি সময় পর্যন্ত থাকে এবং কিছুটা নড়াচড়া করে ব্যাথার স্থান তাহলে এটা হতে পারে অ্যাপেন্ডিসাইটিসের লক্ষণ। এই অবস্থায় আপনাকে জরুরী ভিত্তিতে অপারেশন করাতে হতে পারে। তাই এধরণের ব্যথায় জরুরিভিত্তিতে ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিত।

পিঠের মাঝামাঝি স্থানে ব্যথা এবং জ্বর
আপনার পিঠের মধ্যভাগের ব্যথা, জ্বর এবং ক্লান্তিকে একদমই অবহেলা করবেন না। কারণ এগুলো হতে পারে কিডনি সমস্যার লক্ষণ। কিডনিতে ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ এবং ইউরিন ইনফেকশনের জন্য এধরণের ব্যাথা হতে পারে আপনার।

মাসিকের সময়ে অস্বাভাবিক পেট ব্যাথা
মাসিকের সময়ে যদি অস্বাভাবিক পেটে ব্যথা থাকে এবং সেই ব্যথা সহজে না কমে তাহলে এটাকে অবহেলা করবেন না। কারণ নানান ধরণের গাইনি সমস্যার কারণে মাসিকে তীব্র ব্যথা হতে পারে। তাই এই পরিস্থিতিতে ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়ার চেষ্টা করুন দ্রুত।

ঢাকা, ১৬ সেপ্টম্বর (ওমেনআই)/এলএইচ/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close