আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধ

কেরোসিন ঢেলে দিয়ে স্ত্রীর গায়ে আগুন!

kapashia wmnওমেনআই:যৌতুকের টাকা না দেওয়ায় রুনা আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূকে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করেছেন তার স্বামী হযরত আলী। রোববার সকালে এ ঘটনাটি ঘটে। তাদের এক বছর বয়সী একটি ছেলে রয়েছে।

রুনার স্বজনরা জানান, কাপাসিয়া উপজেলার টোক ইউনিয়নের বীরউজলী গ্রামের শাহজাহানের ছেলে হযরত আলীর সঙ্গে প্রায় আড়াই বছর আগে একই গ্রামের দুলাল উদ্দিনের মেয়ে রুনা আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়।

বিয়ের কয়েক মাস পর ৫০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে হযরত আলী। রুনার বাবা তার অপারগতার কথা জানালে মেয়ের ওপর শুরু হয় নির্যাতন। মেয়ের এ অবস্থা দেখে নিরুপায় হয়ে ধার-কর্জ করে তিনি জামাইয়ের যৌতুকের দাবি মিটান।

এরপর গত ছয় মাস ধরে হযরত আলী আবারও ৫০ হাজার টাকা এনে দেওয়ার জন্য রুনাকে চাপ দিতে থাকে। তাদের ওই টাকা দেওয়ার সামর্থ্য নেই জানালে, কমপক্ষে ১০ হাজার দাবি করা হয়। এই ১০ হাজার টাকার জন্য হযরত আলী কিছ‌‌ুদিন ধরে বেপরোয়া হয়ে ওঠে। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে টাকার জন্য রুনাকে বেদম মারধর করে। একপর্যায়ে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। রুনার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে আগুন নেভালেও ততক্ষণে তার শরীর ঝলসে যায়।

মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে প্রথমে কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়, পরে চিকিৎসকের পরামর্শে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্থানান্তর করা হয় তাকে।

কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাফিজ উদ্দিন বলেন, ‘আগুনে গৃহবধূর পিঠ ও পেটসহ দুই হাতের কিছু অংশ ঝলসে গেছে।‘ তবে শরীরের কত অংশ দগ্ধ হয়েছে তা নিশ্চিত করে তিনি বলতে পারেননি তিনি।

কাপাসিয়া থানা ওসি আহসান উল্লাহ বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। তবে কোনও অভিযোগ পাইনি। তারপরও খোঁজ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

ঢাকা, ০৩ নভেম্বর(ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close