আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
রাজনীতি

২৫ ফেব্রুয়ারি জাতীয় শোক দিবস চাইলেন খালেদা

khaleda zia_19647ওমেনআই:পিলখানার ঘৃণ্য ঘটনাকে বড় ধরনের ষড়যন্ত্র আখ্যা দিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, কোথা থেকে হয়েছে সেটা বলবো না, এ ঘটনায় হাসিনা এবং মঈন দায়ী। এ জন্য ভবিষ্যতে তাদের বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

তিনি বলেন, অনেকই তো জন্মদিন, মৃত্যুদিন পালন করা হয়। পিলখানার ঘটনায় অনেক প্রাণহানি ঘটেছে। তাই এ দিনটাকে জাতীয় শোক দিবস ঘোষণার দাবি জানাচ্ছি। অনেকেই এ বিষয়ে একমত হবেন।

সোমবার রাতে চেয়ারপারসনের গুলশানের কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

দেশের উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসংস্থানের জন্য তার দল ফর্মুলা তৈরি করছে জানিয়ে তিনি সরকারের বিভিন্ন অনিয়মের কঠোর সমালোচনা করেন খালেদা জিয়া।

তিনি বলেন, ভয়ের কোনো কারণ নেই, জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। এবারের আন্দোলনের মাধ্যমে অত্যাচারী সরকারকে বিদায় করা হবে।

শেখ হাসিনার সমাবেশের চেয়ে খালেদা জিয়ার সমাবেশে বেশি লোকসমাগম হয়েছে এমন দাবি করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ২ দিন আগে ২৯ তারিখে আমরা কুমিল্লা সমাবেশ করেছি। হাসিনা হবিগঞ্জে সমাবেশ করেছে। আমাদের সমাবেশে জনগণ বেশি অংশ গ্রহণ করেছে। তার সমাবেশে গার্মেন্টস কর্মী আর ভিডিপি আনসাররা ছিল।

তিনি বলেন, আজকে মুক্তিযোদ্ধারা ভালো নেই। তারা অবহেলিত, তাদের সম্মান নেই। ফার্মগেটে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় জিয়াউর রহমানের নামফলক মুছে ফেলা হয়েছে। বর্তমান সংসদের কার্যক্রম ভবিষ্যতে অকার্যকর করা হবে।

র‌্যাব-পুলিশ, ডিবি, দুদক, বিচার বিভাগ, সেনাবাহিনীতে দলীয় করণের অভিযোগ এনে সরকারের সমালোচনা করেন তিনি।

জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের মাসব্যাপী কর্মসূচি অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, সহসভাপতি হাফিজ উদ্দিন, শমসের মবিন, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য শাজাহান ওমর, অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সালাম, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাৎ প্রমুখ।

২৫ ফেব্রুয়ারি জাতীয় শোক দিবস চাইলেন খালেদা

ঢাকা, ০২ ডিসেম্বর (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close