আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
জাতীয়

‘দেশে কোনো দরিদ্র মানুষ থাকবে না’

hasinaওমেনআই:প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন. বাংলাদেশে কেনো দরিদ্র্য মানুষ থাকবে না। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত করার টার্গেট নিয়ে আমরা কাজ করছি।

লক্ষ্য বাস্তবায়নে দেশে বিনিযোগের সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার ওপর জোর দিয়েছি আমরা।

প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমাদের গার্মেন্টস খাত নিয়ে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র হচ্ছে জানিয়ে এ ব্যাপারে মালিক-শ্রমিক-ক্রেতা সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেন।

আজ রবিবার দুপুরে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অ্যাপারেল সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলেছেন।এই সামিট ৯ই ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে।বিজিএমইএ’র উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী ঢাকা অ্যাপারেল সামিটের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তৈরি পোশাক খাত বাংলাদেশের গর্ব হিসেবে তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে জানান, দেশের রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ আসে এই খাত থেকে। এতে প্রায় ৪০ লাখ শ্রমিকের কর্মসংস্থান, যার প্রায় ৮০ শতাংশই গ্রামীণ নারী।

নারীদের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের ফলে দেশের দারিদ্র্য দ্রুত কমে আসছে বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, পোশাক খাত প্রসারের ফলে সার্বিক সেবাখাত বিকশিত হয়েছে। অগ্র ও পশ্চাৎ সংযোগ শিল্প গড়ে উঠেছে। রপ্তানিমুখী কম্পোজিট টেক্সটাইল শিল্প গড়ে উঠায় তৈরি পোশাকে দেশীয় মূল্য সংযোজনও বেড়েছে। দেশের প্রায় ২০ শতাংশ মানুষ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে তৈরি পোশাক খাতের ওপর নির্ভরশীল।

তৈরি পোশাক শিল্পে তার সরকার আর্থিক প্রণোদনা ও নীতি-সহায়তা দিয়ে আসছে ভবিষ্যতেও তা অব্যাহত থাকবে, এমন ঘোষণা দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, তিনি বিশ্বাস করেন এটাই তার সরকারের দায়িত্ব।

প্রধানমন্ত্রী এসময় শ্রমিক কল্যাণে তার সরকারের নেওয়া পদক্ষেপগুলোও তুলে ধরেন। পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৫ হাজার ৩০০ টাকায় উন্নীত করার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাঁচ বছরে ২২০ শতাংশ মজুরি বেড়েছে। বিশ্বের কোথাও মজুরি বৃদ্ধির এমন উদাহরণ নেই।

পোশাক শ্রমিকসহ কর্মজীবী স্তনদানকারী মায়েদের মাসিক ভাতা দেওয়া হচ্ছে। শিল্পাঞ্চলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শিল্প পুলিশ গঠন করা হয়েছে। বিজিএমইএকে সার্টিফিকেট অব অরিজিন ইস্যু করার ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। বিজিএমইএ ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয় চালু করা হয়েছে, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close