আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
আন্দোলন সংগ্রামে নারী

নারী জাগরণের অগ্রদূত বেগম রোকেয়া

rokyea wmnওমেনঅাই: বাংলার নারী জাগরণের অগ্রদূত মহিয়সী বেগম রোকেয়ার ১৩৪তম জন্ম ও ৮২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ।

বেগম রোকেয়া ১৮৮০ সালের ৯ ডিসেম্বর রংপুর জেলার পায়রাবন্দ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। রক্ষণশীল মুসলিম পরিবারে জন্ম নিয়ে তিনি নারী জাগরণের অগ্রদূতের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। তিনি ঊনবিংশ শতাব্দীর একজন খ্যাতিমান বাঙালি সাহিত্যিক ও সমাজ সংস্কারক। ১৯৩২ সালের ৯ ডিসেম্বর তিনি কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন।

বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন। এ উপলক্ষে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় রোকেয়া দিবস উপলক্ষে সকাল সাড়ে ১০টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে রোকেয়া পদক প্রদান ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এতে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন।

রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, ‘নারীজাগরণের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন দেশে নারী শিক্ষা প্রসারে যে ঐতিহাসিক অবদান রেখে গেছেন তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তিনি ঊনবিংশ শতাব্দীতে এ মহাদেশে মুসলিম সমাজে ধর্মীয় রক্ষণশীলতা, শিক্ষার অনগ্রসরতার বেড়াজাল ও বন্দিত্বের শৃঙ্খলে আবদ্ধ নারীসমাজকে অশিক্ষার অভিশাপ থেকে মুক্ত করতে অতুলনীয় অবদান রাখেন।’

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘বেগম রোকেয়ার আদর্শ ও অনুপ্রেরণায় এদেশে সকল পর্যায়ে নারীর সমঅধিকার প্রতিষ্ঠাসহ নারীর ক্ষমতায়নের পথ সুগম হবে।’

বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে দেয়া বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেগম রোকেয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে অনগ্রসর নারীদের পাশে দাঁড়াতে সবাইকে আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘বেগম রোকেয়া শুধু একটি নাম নয়, তিনি ছিলেন নারী শিক্ষার একটি প্রতিষ্ঠান।’

তিনি বলেন, ‘ঊনবিংশ শতাব্দীর কুসংস্কারাচ্ছন্ন রক্ষণশীল সমাজের শৃঙ্খল ভেঙ্গে বেগম রোকেয়া নারী জাতির মধ্যে ছড়িয়ে দেন শিক্ষার আলো।’

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন।

রোকেয়া দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ ঢাকায় ও শাখাগুলোতে আলোচনা সভা, সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। বাংলা একাডেমি আয়োজন করেছে একক বক্তৃতানুষ্ঠানের। একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে আজ বিকেল ৪টায় এই বক্তৃতা অনুষ্ঠিত হবে। এতে ‘রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন ও নারী আন্দোলন’ শীর্ষক বক্তৃতা প্রদান করবেন বিশিষ্ট গবেষক, অধ্যাপক মালেকা বেগম।

রোকেয়া দিবস- ২০১৪ পালন উপলক্ষে বেগম রোকেয়ার জন্মস্থান রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ গ্রামে মঙ্গলবার থেকে তিন দিনব্যাপী কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

সকাল ৯টায় পায়রাবন্দ গ্রামে বেগম রোকেয়া স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত।

অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে রয়েছে মিলাদ-মাহফিল, আলোচনা সভা, রক্তদান ও রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা এবং তিন দিনব্যাপী ঐতিহ্যবাহী ‘রোকেয়া মেলা’।

দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, রচনা প্রতিযোগিতা এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এ ছাড়াও কর্মসূচির তিনদিনই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। এসব অনুষ্ঠানে জনপ্রতিনিধি, দেশ বরেণ্য বুদ্ধিজীবী, শিক্ষক, বেগম রোকেয়া গবেষকরা অংশগ্রহণ করবেন।

ঢাকা, ০৯ ডিসেম্বর (ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close