আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
বিনোদন

অভিনেত্রী মিলির অপেক্ষা

mili wmnওমেনআই:টিভি পর্দায় উপস্থিতিটা তার আলাদা রকমের। অন্য শিল্পীদের মতো টানা ক্যামেরায় আসেন না। আবার এলেও কাজ শেষে বিরতিতে চলে যান। বলা হচ্ছিল টিভি পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী ফারহানা মিলির কথা। গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘মনপুরা’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে দর্শকের নজর কাড়েন তিনি। তবে এটাই তার প্রথম চলচ্চিত্র। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত আর কোন ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যায়নি মিলিকে। এরপর থেকে নিয়মিত হয়েছেন টিভি নাটকে। বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করে দর্শক আলোচনায় আসেন। তবে মাঝে লম্বা একটি সময় বিরতিতে চলে যান। মা হওয়ার পর গেল বছর আবারও নিয়মিত কাজ করা শুরু করেন এ অভিনেত্রী। টিভি মাধ্যমে এ আসা যাওয়া প্রসঙ্গে মিলি বলেন, শুরু থেকে কাজের ব্যাপারে একটু সাবধানতা অবলম্বন করে আসছি। নাটক কিংবা টেলিছবিতে অভিনয় করি ঠিকই, কিন্তু সেটা গল্প বোঝে।
আমার কাছে গল্পটাই আসল। গল্প ভাল লাগলে অভিনয় করি। যে কারণে কিছুদিন বিরতি দিয়ে আবার শুরু করি। বর্তমানে ধারাবাহিক আর খ-নাটকে অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত সময় যাচ্ছে তার। অবশ্য এ মুহূর্তে একটি ধারাবাহিকের শুটিং নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। বিবিসির উজান গাঙের নাইয়া’র দ্বিতীয় কিস্তির শুটিংয়ে কক্সবাজারে রয়েছেন মিলি। এখন পুরো মনোযোগ এখানেই দিচ্ছেন। এ নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে মিলি বলেন, এ ধারাবাহিকে উপকূলবর্তী জনপদের একজন নারীর চরিত্রে অভিনয় করছি আমি।

অনেক পরিকল্পিত ও গোছানো কাজ হচ্ছে। এবারই প্রথম বিবিসির নাটকে অভিনয় করছি। বেশ ভালই লাগছে। আশা করছি দর্শকের কাছেও ভাল লাগবে। আমিও অপেক্ষায় আছি এটা প্রচারের পর দর্শক প্রতিক্রিয়ার। এর আগে বিবিসির একটি ক্যাম্পেইনে অংশ নিয়েছিলাম। এদিকে এ নাটকটি ছাড়াও বর্তমানে মিলি অভিনীত আরও চারটি ধারাবাহিক প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে। এগুলো হলো ‘একজন মায়াবতী’, ‘শূন্য থেকে শুরু’, ‘দহন’ ও ‘তিনি আসবেন’। দীর্ঘদিন ধরেই টিভি নাটকের সঙ্গে রয়েছেন তিনি। নিজের চরিত্র নিয়ে অনেক বেশি সচেতন এ অভিনেত্রী। অভিনয়ের জন্য কেমন চরিত্র পছন্দ? এমন প্রশ্নের জবাবে মিলি বলেন, আমি তো খুব বেশি সময় কাজ করিনি।

আবার মাঝখানে বিরতিও ছিল। তবে নিয়মিত কাজ করার সংকল্প নিয়েই যেহেতু আসা, তাই ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রের খাপে তো নিজেকে বসাতে হবেই। অবশ্য এমন কোন চরিত্র নেই যে, সেটি ছাড়া আমি অন্য কিছু করবো না। ততটা পরিপক্ব এখনও হয়ে উঠিনি। পর্দায় আমাকে যে রকম শান্তশিষ্টভাবে মানুষ দেখা যায়, বাস্তবেও আমি তেমন। ভিন্ন ভিন্ন কাজ করার চেষ্টা করি। নিজেকে ভেঙে বা নিজের চরিত্রের উল্টো দিকে হাঁটার পরীক্ষণটি উপভোগ করি। হয়তো এমন চরিত্রে আমার কম কাজ করা হয়, তাই চোখে পড়ে না। মিলি অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটকের মধ্যে রয়েছে শুভ্র উজ্জ্বলের ‘মন্দ বিশ্বাস’, তারিকুল ইসলামের ‘বউ শাশুড়ি থেরাপি’, সুমন আনোয়ারের ‘বিনিসুতো’, সাজ্জাদ সুমনের ‘চিলেকোঠার স্বপ্ন’, অলির ‘একজন মেকআপম্যান অথবা নীরবতার গল্প’, রাজীব আহমেদের ‘নকশিকাঁথার মাঠ’, রাসুর ‘এ জার্নি বাই মাইক্রোবাস’, ‘থিয়েটারওয়ালা’, ‘ভালবাসার দ্বিতীয় গল্প’ ইত্যাদি।

ঢাকা, ২২ ডিসেম্বর (ওমেনআই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close