আমাদের নুতন ওয়েবসাইট www.womeneye24.com চালু হয়েছে। নুতন সাইট যাবার জন্য এখানে ক্লিক করুন
অপরাধ

প্রেম, বাল্যবিয়ে, অতঃপর…

suicide 30.12.14ওমেনআই:চলতি বছর নভেম্বরে জেএসসি পরীক্ষা চলাকালীন মলিনার বিয়ে দেয় তার পরিবার। বিয়ের কারণে দুটি বিষয়ে অংশ নিতে পারে সে। প্রেমের সম্পর্ক ধরেই বিয়ে হয় মুকুলের সঙ্গে। কিন্তু বিয়ের পরে বন্ধ হয়ে যায় লেখাপড়া। শুরু হয় স্বামীর সঙ্গে টানাপোড়ন। আর এ কারণেই বিয়ের মাত্র একমাস বিষপানে আত্মহত্যা করে মলিনা।

মলিনার বাড়ি রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার ল্যাপপাড়ায়। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার রাত ৯টায় সে মারা যায়।

রামেক হাসপাতালে মলিনার মা মাসুরা বেগম জানান, চলতি বছর জেএসসি পরীক্ষা চলাকালীন একই এলাকার মুকুলের সঙ্গে তার বিয়ে দেয়া হয়। দুইজনের মনের অবস্থা বিবেচনা করেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। জেএসসি পরীক্ষায় মাত্র দুইটি বিষয়ে অংশ নেন মলিনা। এরপরে বিয়ে হয়ে যাওয়ার কারণে লেখাপড়া বন্ধ হয়ে যায়।

মাসুরা বেগম আরো জানান, বিয়ের দুই সপ্তাহের মধ্যেই মলিনা ও মুকুলের মধ্যে দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। কলহের বিষয়ে মলিনা তাদের জানিয়েওছিল। মলিনা তার স্বামীর বাড়িতে থাকতে চাইতো না। প্রায় সময় স্বামীর বাড়ি থেকে তাকে নিয়ে আসতে বলতো। না নিয়ে গেলে গলায় ফাঁস অথবা বিষপান করে আত্মহত্যা করবে বলেও মলিনা কয়েকবার হুমকি দিয়েছিল।

ছোট মেয়ের পাগলামি ভেবে পরিবারের সদস্যরা এ বিষয়ে কর্ণপাত করেন নি। রোববার সকালে বিষপান করে মলিনা। এরপর তাকে রামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় দিনগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে মলিনা হাসপাতালে মারা যায়।

মলিনার মৃত্যু যেনো কোনভাবেই মানতে পারছিলেন না তার মা মাসুরা বেগম। সোমবার বেলা ১১টার দিকে রামেক হাসপাতালে মেয়ের লাশ জড়িয়ে ধরে কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, তার মতো অবস্থায় যেনো অন্য পিতা-মাতাকে পড়তে না হয়। আর কোনো বাবা-মা যেন তাদের সন্তানদের নাবালিকা থাকতে বিয়ে না দেয়।

সোমবার বিকেল মলিনার দাফন সম্পন্ন হয়।

ঢাকা, ৩০ ডিসেম্বর (ওমেনঅাই)/এসএল/

আরও পড়ুন

Back to top button
Close
Close